দলিত নির্যাতনের প্রতিবাদে কলকাতার রাজপথে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Mysepik Webdesk: উত্তরপ্রদেশের দলিত গণধর্ষণ কাণ্ডে এবার কলকাতার রাজপথে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ঘটনার প্রথম থেকেই উত্তরপ্রদেশ সরকারের কড়া প্রতিবাদ করে এসেছিলেন তিনি। এবার পুলিশের ধাক্কায় রাজ্যসভার তৃণমূল দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়েন রাস্তায় পড়ে যাওয়ায় সেই প্রতিবার আরও জোরালো হয়েছে। এদিন বিড়লা তারামণ্ডল থেকে গান্ধিমূর্তির পাদদেশ পর্যন্ত মিছিল করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর হাতে ছিল প্রতিবাদের প্রতীকী টর্চ।

আরও পড়ুন: পুজোর আগে বস্ত্র বিতরন শিক্ষিকা প্রতিভা গাঙ্গুলীর

ভোট এলেই দলিতের বাড়িতে যাওয়া, খাওয়াদাওয়া করা। আবার ভোট পেরোলেই ফের নির্যাতন, এই অন্যায় মণ হবে না বলে এদিন জানা তিনি। সিঙ্গুরের প্রসঙ্গ তুলে তিনি জানান, “সিঙ্গুরে প্রতিবাদ করেছি। আজও করব। দেশে আজ আর মহাত্মা গান্ধি, আম্বেদকর মহাপুরুষ নন, দেশে একমাত্র মহাপুরুষ হল বিজেপি।” সময়ের রণং দেহি মেজাজে এদিন মুখ্যমন্ত্রী দলিত নির্যাতনের পাশাপাশি কৃষক আন্দোলনের ঘটনাও তুলে ধরেন।

আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশের ঘটনায় কংগ্রেসের বিক্ষোভ মিছিল বীরভূমে

তাঁর কথায়, “বিজেপি সবকিছুই একতরফা করছে। বিজেপি দাঙ্গা চালাচ্ছে। দেশ এখন একনায়কের। কৃষক দলিতরা অন্ধকারে রয়েছেন। মুসলিমের পাশে দাঁড়াতে হবে। সব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। দেশে স্বৈরতন্ত্র চলছে।” সিঙ্গুরে তাঁর অনশন এবং বাংলায় বাম জমানায় তাপসী মালিকের মৃত্যুর ঘটনার প্রসঙ্গ তুলে এনে তিনি বলেন, “সেদিন সিঙ্গুরে যা হয়েছিল আজ উত্তরপ্রদেশেও তাই হয়েছে।”

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *