জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ বাড়াতে পাকিস্তানকে পরামর্শ চিনের!

Mysepik Webdesk: এমনিতেই ইচ্ছাকৃতভাবে লাদাখ সীমান্তে পরিস্থিতি উত্তপ্ত করে রেখেছে চিন সেনা। আর তার মধ্যেই ভারতের জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ বাড়াতে ইসলামাবাদকে নির্দেশ দিয়েছে বেজিং। সম্প্রতি সরকারি গোয়েন্দা সূত্রে এমনি খবর পাওয়া গিয়েছে। সূত্রের দাবি, ভারতকে দু’দিক থেকেই চাপে রাখতে এই পন্থা অবলম্বন করেছে চিন সরকার। সম্প্রতি জম্মু-কাশ্মীরের একাধিক এলাকা থেকে প্রচুর অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করেছে ভারতীয় সেনা, আর সেগুলি যাচাই করেই এই সিদ্ধান্তে এসেছে গোয়েন্দারা।

আরও পড়ুন: ১ অক্টোবর পাড়ার মিষ্টির দোকানেও এবার লাগু হচ্ছে নতুন নিয়ম

গোয়েন্দাদের ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, ভারতীয় সেনাদের কড়া নিরাপত্তার কারণে ভারতে বেআইনি অস্ত্রশস্ত্র পাঠাতে পারছেনা পাক-জঙ্গিরা। সেই কারণে পরিকল্পনা মত কাশ্মীরে হিংসার ঘটনা বৃদ্ধিও করতে পারছেনা জঙ্গিরা। তবে শীতের আগেই উপত্যকায় আরও বেশি বেশি করে হিংসাত্মক ঘটনা ঘটানোর জন্য পাকিস্তানকে চাপ দিচ্ছে চিন সরকার।

আরও পড়ুন: রাষ্ট্রসঙ্ঘে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিবৃতির কড়া জবাব দিল ভারত

এই রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরেই আরও আঁটোসাঁটো করা হয়েছে সীমান্তের নিরাপত্তা। অনুপ্রবেশ রুখতে আরও সক্রিয় হয়েছে ভারতীয় সেনা। নিয়ন্ত্রণা রেখা ধরে চলছে জোরদার নজরদারি। ইতিমধ্যেই গত কয়েকদিনে জম্মু-কাশ্মীর সফর করেছেন সেনা প্রধান এমএম নারাভানে, বিএসএফ প্রধান রাকেশ আস্থানা এবং সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের প্রধান এপি মাহেশ্বরী। জানা গিয়েছে, এঁরা প্রত্যেকেই আলাদা ভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে রিপোর্ট জমা করবেন।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *