লাদাখ সীমান্তে আকাশপথে বাড়ছে চিনা হেলিকপ্টারের আনাগোনা, মোতায়েন এয়ার ডিফেন্স মিসাইল

Mysepik Webdesk: লাদাখ সীমান্তে ক্রমেই বাড়ছে চিনা সেনার হেলিকপ্টারের আনাগোনা। পাল্টা ভারতের পক্ষ থেকে এয়ার ডিফেন্স মিসাইল সহ বাহিনীকে মোতায়েন করা হয়েছে সীমান্তে। প্রথম পর্যায়ে কাঁধে নিয়ে নিক্ষেপ করা যায়, এরকম এয়ার ডিফেন্স মিসাইল পাঠানো হয়েছে সীমান্তে। লাদাখের গুরুত্বপূর্ণ পাহাড় চূড়ো এবং উঁচু এলাকাগুলিতে রাশিয়ান প্রযুক্তিতে তৈরি ওই এয়ার ডিফেন্স মিসাইলগুলিকে মোতায়েন করা হয়েছে যাতে আকাশপথে কোনও শত্রুপক্ষের বিমান কিংবা হেলিকপ্টার ভারতীয় সীমান্তে ঢুকে পড়লে সেগুলিকে আটকানো সম্ভব হয়।

আরও পড়ুন: পঙ্গপালের পরে এবার নতুন ধ্বংসকারী কীট সেমিলুপার, চিন্তিত বিজ্ঞানীমহল

পাশাপাশি ওই এলাকাগুলিতে একাধিক রাডার স্থাপন করা হয়েছে যা সহজেই শত্রুপক্ষের যুদ্ধবিমান কিংবা হেলিকপ্টার সনাক্ত করতে পারবে। গালওয়ান, প্যাট্রলিং পয়েন্ট ১৪ এলাকাগুলিতে ভূমি থেকে আকাশে হামলা করতে সক্ষম মিসাইল সিস্টেমও প্রস্তুত রেখেছে ভারত। চিনা আগ্রাসন রুখতে পূর্ব লাদাখে আকাশপথে নজরদারি চালাতে মে মাসের শুরু থেকে সুখোই-৩০এমকেআই যুদ্ধবিমানকে মোতায়েন করেছে ভারত। পাশাপাশি চিনের জিনজিয়াং প্রদেশ এবং তিব্বত অঞ্চলে ছড়িয়ে থাকা চিনা বায়ুসেনার হোটান, গার গুনসা, কাশঘর, হপিং, ঢোনকা ডিজং, লিনঝি এবং পানঘাট এয়ারবেসগুলির উপরেও কড়া নজরদারি চালাচ্ছে ভারত।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *