Latest News

Popular Posts

মোটেই সুবিধের নয় কাপড়ের মাস্ক! সাবধান করছেন চিকিৎসকরা

মোটেই সুবিধের নয় কাপড়ের মাস্ক! সাবধান করছেন চিকিৎসকরা

Mysepik Webdesk: শীতের শুরুতে অনেকেই কাপড়ের মাস্ক পরে থাকেন। কারণ, এই সময়ে এন ৯৫ মাস্ক ব্যবহার করলে অনেকেই শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যায় ভোগেন। কিন্তু, সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, কাপড়ের তৈরি মাস্ক মোটেই সুবিধের নয়। কাপড়ের মাস্ক পরলে মাত্র ২০ মিনিটেই করোনা সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

আরও পড়ুন: সামনে এল ওমিক্রনের আরও দুই উপসর্গ

বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনার বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশি সুরক্ষা প্রদান করে এন-৯৫ মাস্ক। একাধিক গবেষণা করে এমনটাই জানিয়েছে সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন সংস্থার বিশেষজ্ঞরা। এক্ষেত্রে, কোনও সংক্রমিত ব্যক্তি যদি মাস্ক না পরে থাকেন, তাহলে তাঁর ৬ ফিট দূরত্বের মধ্যে থাকা মাস্কহীন কোনও সুস্থ ব্যক্তি মাত্র ১৫ মিনিটের মধ্যে সংক্রমিত হতে পারেন। এছাড়াও যদি দু’জনেই কাপড়ের মাস্ক পরেন, তাহলে সংক্রমণ হতে পারে ২৭ মিনিটের মধ্যে। যদি আক্রান্ত ব্যক্তি মাস্ক না পরেন এবং অন্যজন কাপড়ের মাস্ক পরে থাকেন, সেক্ষেত্রে সংক্রমণ ছড়াতে ২০ মিনিট সময় লাগে। যদি দু’জনেই এন-৯৫ মাস্ক পরেন, তাহলে সংক্রমণের সময়সীমা বেড়ে হবে ২৫ ঘণ্টা।

আরও পড়ুন: ওমিক্রন থেকে বাঁচতে কোন ধরণের মাস্ক কীভাবে পরা উচিত? জানুন বিস্তারিত

তবে, কোনও ব্যক্তি এন-৯৫ মাস্ক না পরতে চাইলে তাঁর পক্ষে যথাযথ হবে সার্জিক্যাল মাস্ক। যদি একান্তই কেউ যদি কাপড়ের মাস্ক পরতে চায়, সেক্ষেত্রে প্রথমে একটি সার্জিক্যাল মাস্ক পরে তার ওপর কাপড়ের মাস্ক পরা উচিত। সেক্ষেত্রে করোনা সংক্রমণের হাত থেকে অনেকটাই সুরক্ষিত থাকা সম্ভব।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *