বিহার ক্রিকেট লিগ নিয়ে বিতর্ক, বিসিএ-বিসিসিআই দ্বন্দ্ব চরমে

BCA

Mysepik Webdesk: বিহার ক্রিকেট লিগ (বিসিএল) শুরু হওয়ার আগে থেকেই বিতর্কের সূত্রপাত ঘটেছে। শনিবার এই টি-২০ লিগের জন্য খেলোয়াড়দের নিলাম হয়েছিল। নিলামে প্রাক্তন ক্রিকেটার মদন লাল এবং উইকেট-কিপার ব্যাটসম্যান সাবা করিমও উপস্থিত ছিলেন। এখন ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) নিলামের বিরোধিতা করছে।

আরও পড়ুন: ৪১, ৪৪ নাকি ৪৬, জন্মদিনেও জানা গেল না আফ্রিদির আসল জন্মদিন

বিসিসিআইয়ের মতে, বিহার ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (বিসিএ) লিগ শুরু করার কোনও অনুমতি নেয়নি। এদিকে বিসিএ আবার বলছে যে, তারা ২২ জানুয়ারিতেই বিসিসিআইকে অনুমতিপত্র পাঠিয়েছিল, যার কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও পাওয়া যায়নি।

বিসিসিআইয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সংবাদ সংস্থাকে বলেছেন― “আমার তথ্য অনুসারে, বিসিএ ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কোনও ধরনের লিগ আয়োজনের জন্য স্বীকৃত হয়নি। এমন পরিস্থিতিতে খেলোয়াড়দের নিলাম কীভাবে হয়? একইসঙ্গে, অ্যান্টি কোরাপশন ইউনিট (এসিইউ) বিসিসিআইকে কোনও রাজ্য টি-২০ লিগকে সবুজ সংকেত দেওয়ার আগে কঠোর নির্দেশনা দেওয়ারও সুপারিশ করেছিল।”

আরও পড়ুন: কান্নাকাটি বন্ধ করে প্রস্তুতি নিক ইংল্যান্ড, পিচ বিতর্কে ভারতের পাশে ভিভ রিচার্ডস

বিসিএ সভাপতি রাকেশ তিওয়ারি জানিয়েছেন, অনুমোদনের জন্য বিসিসিআইয়ের কাছে আবেদন করা হয়েছিল। তিনি বলেন, “আমরা বিসিসিআইয়ের কাছে অনুমতি চেয়েছিলাম, কিন্তু এক মাসেরও বেশি সময় পার হওয়ার পরেও তাদের কাছ থেকে কোনও সাড়া পাওয়া যায়নি। এর পরে নিলাম হয়েছিল।”

একইসঙ্গে এলিট স্পোর্টসের প্রধান নিশান্ত দয়াল বলেছেন যে, “নিয়ম অনুসারে এ জাতীয় টুর্নামেন্টের ৪৫ দিন আগে অনুমতি নিয়ে চিঠি পাঠাতে হবে। অনুমোদনের জন্য চিঠিটি বিসিএ ২২ জানুয়ারি পাঠানো হয়েছিল। টুর্নামেন্টের সুষ্ঠু ইভেন্ট সম্পর্কে বিসিসিআইয়ের এসিইউ ইউনিটকেও জানানো হয়েছিল।”

উল্লেখ্য যে, শনিবার নিলামে বিহারের প্রায় শতাধিক ক্রিকেটার বিড করলেন। সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফিতে বিহার দলের নেতৃত্বদানকারী আশুতোষ আমান ও তারকা ব্যাটসম্যান বাবুল কুমার সহ ১২ জন খেলোয়াড়কে ৫০,০০০ টাকায় বিক্রি করা হয়েছিল।

বিসিএল পটনার এনার্জি স্টেডিয়ামে ২১ থেকে ২৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ৫টি ফ্র্যাঞ্চাইজি দল― অঙ্গিকা অ্যাভেঞ্জার্স, ভাগলপুর বুলস, দারভাঙা হীরা, গয়া গ্ল্যাডিয়েটরস এবং পটনা পাইলট এতে অংশ নিচ্ছে। টুর্নামেন্টটি একটি বেসরকারি ক্রীড়া চ্যানেলে সম্প্রচারিত হবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *