করোনার বাড়বাড়ন্ত, মহারাষ্ট্রে ১৫ দিনের লকডাউনের সম্ভাবনা

Mysepik Webdesk: দেশজুড়ে প্রতিদিনই বেড়ে চলেছে করোনা সংক্রমণ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ দপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় দেশজুড়ে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ১,৫২,৮৭৯ জন। করোনাকে নিয়ন্ত্রণ করতে ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে নেওয়া হয়েছে একাধিক পদক্ষেপ। গত কয়েকদিন ধরে একাধিক রাজ্যে শুরু হয়েছে নাইট কার্ফু। তবুও বাগে আনা যাচ্ছে না করোনা সংক্রমণ। মহারাষ্ট্র, ছত্তীসগড়, ঝাড়খণ্ড, তামিলনাড়ু, পাঞ্জাবের মতো রাজ্যগুলিতে তুলনামূলক অনেকটাই বৃদ্ধি পাচ্ছে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। এই ঘটনা স্বাভাবিকভাবেই চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে কেন্দ্রের কপালে। অন্যান্য রাজ্যগুলির তুলনায় সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রে। সেখানে গত ২৪ ঘন্টায় ৫৫,৪১ জন নতুন আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে।

আরও পড়ুন: দেশকে করোনামুক্ত করতে চারদিন ধরে শুরু ‘টিকা উৎসব’

ইতিমধ্যেই মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে শনিবার রাজ্যে একটি সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছিলেন। ওই বৈঠকে সমস্ত নেতারা ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে যোগদান করেছিলেন। সেই বৈঠকে মহারাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়। সেই আলোচনায় তিনি সহকর্মী এবং বিরোধী নেতাদের কাছে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার বিষয়ে মতামত জানতে চান। ওই বৈঠকে ১৫ দিনের মহারাষ্ট্র লকডাউন করার বিষয়েও আলোচনা করা হয়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মহারাষ্ট্রের উপমুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ার, স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ টোপ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দিলীপ ভালসায় পাতিল, বালাসাহেব থোরাট, কংগ্রেস নেতা অশোক চৌহ্বান, মহারাষ্ট্র কংগ্রেস সভাপতি নানা পটোল, নগর উন্নয়ন মন্ত্রী একনাথ শিন্ডে, বিরোধী দলনেতা দেবেন্দ্র ফড়নভিস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও মহারাষ্ট্র বিজেপি সভাপতি চন্দ্রকান্ত পাতিল, মুখ্যসচিব সীতারাম কুন্তে, স্বাস্থ্য সচিব প্রদীপ ব্যাস প্রমুখরা।

আরও পড়ুন: উদ্বেগ: করোনায় ক্রমে ঊর্ধ্বমুখী পশ্চিমবঙ্গ, দেশে শীর্ষে মহারাষ্ট্র

জানা গিয়েছে, ওই বৈঠকেই ১৫ দিনের কঠোর লকডাউন নিয়ে আলোচনা করা হয়, যেখানে বেশিরভাগ নেতারাই সহমত পোষণ করেছেন। উদ্ধব ঠাকরের মতে, এই মুহূর্তে ক্রমবর্ধমান করোনা সংক্রমণকে ঠেকাতে টিকাকরণ সঠিক সিদ্ধান্ত নয়, প্রয়োজন কড়া লকডাউনের। কারণ করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ আগের চেয়ে আরও মারাত্মক আকারে ছড়িয়ে পড়ছে, যা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না। ইতিমধ্যেই মহারাষ্ট্রের হাসপাতালগুলিতে বেড পাওয়ার সমস্যা দেখা দিয়েছে। জানা গিয়েছে, শীঘ্রই কোভিড -১৯ টাস্কফোর্সের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে বৈঠক করবেন। সেই বৈঠকেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে রাতারাতি লকডাউন ঘোষণা নয়, সবদিক বিচার করে তথা ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের নিজ রাজ্যে ফিরে যাওয়ার সময় দিয়েই লকডাউনের ঘোষণা কড়া হতে পারে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *