বিশ্বের প্রাক্তন সবচেয়ে স্থূল ব্যক্তি জয় করলেন করোনা

Juan Pedro Franco

Mysepik Webdesk: করোনাভাইরাসের জেরে জেরবার সকলেই। বিশ্বজুড়ে তাণ্ডব চালাচ্ছে এই মারণ ভাইরাস। প্রাণ হারিয়েছে কয়েক লক্ষ মানুষ। তবে বিশ্বের প্রাক্তন সবচেয়ে স্থূল ব্যক্তি জয় করে ফেললেন করোনাকে। মেক্সিকোর সেই হুয়ান পেদ্রো ফ্রাঙ্কো, যিনি এক সময় ছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে স্থূল ব্যক্তি। অনেক প্রচেষ্টায় সেই অবস্থা থেকে কিছুটা উতরে উঠেছেন। তিনি দীর্ঘ দিন ধরে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও পালমোনারির মতো জটিল রোগে ভুগছেন। এমন অবস্থায়ও তিনি জয় করলেন করোনাভাইরাসকে।

আরও পড়ুন: কাঁদতে কাঁদতে সীমান্তে যাচ্ছে চিনের সেনারা! ভাইরাল ভিডিও

অতিরিক্ত ওজনের কারণে এক সময়ে তাঁর অবস্থা মরণ দশায় পৌঁছে গিয়েছিল। ওজন বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ৫৯৫ কেজি। ওই অবিশ্বাস্য জনের জন্যই ২০১৭ সালে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস বুকে নাম উঠেছিল তাঁর। তবে বেঁচে থাকার আশা ছাড়েননি ফ্রাঙ্কো। গত ৩ বছর ধরে তিনি কঠোর ভাবে ডায়েট ও ব্যায়াম করে আসছে ফ্রাঙ্কো। সেই সঙ্গে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে পাকস্থলী ছোট করে ওজন অনেকটা কমিয়েছেন তিনি। বর্তমানে তাঁর ওজন কমে দাঁড়িয়েছে প্রায় ২০৮ কেজি।

সম্প্রতি ৩৬ বছরের ফ্রাঙ্কো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। যেহেতু তাঁর শরীরে আগে থেকেই নানানা জটিলতা ছিল ফলে এই ভাইরাসের মোকাবিলা করা তাঁর পক্ষে খুব কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছিল। তবে তিনি সেই মারণ ভাইরাস জয় করেছেন। করোনা থেকে সেরে উঠে ফ্রাঙ্কো নিজের বাড়ি থেকে এএফপিকে জানিয়েছেন, “এটা খুবই আক্রমণাত্মক রোগ। জ্বরের সঙ্গে আমার মাথা ব্যথা ছিল, শরীর ব্যথা ছিল, শ্বাস নিতেও কষ্ট হচ্ছিল। আমি খুবই ঝুঁকিতে থাকা একজন ব্যক্তি ছিলাম।” তবে ফ্রাঙ্কো করোনাভাইরাস থেকে সেরে উঠলেও এই রোগে মারা গেছেন তাঁর ৬৬ বছর বয়সী মা।

আরও পড়ুন: নেপালের ভূখণ্ডে চিনের অবৈধ নির্মাণ, ‘গো ব্যাক চায়না’ ধ্বনিতে মুখরিত হল নেপালের রাস্তা

ফ্রাঙ্কোর স্থূলতা কমানো নিয়ে চিকিৎসক দলের প্রধান আন্তোনিও কাস্তানেদা জানিয়েছেন, “যেসব রোগী ডায়বেটিসে আক্রান্ত, যারা উচ্চ রক্তচাপ ও হার্টে সমস্যা রয়েছে তাদের গুরুতর জটিলতায় ভোগার সম্ভাবনা রয়েছে।”

করোনায় এখন পর্যন্ত মেক্সিকোতে যাদের মৃত্যু হয়েছে তাদের অধিকাংশই উচ্চ রক্তচাপ, ডায়বেটিস ও স্থূলতার সমস্যা ছিল।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *