কলকাতায় আরও এক বিলেতফেরত যুবকের শরীরে করোনার নতুন স্ট্রেন? বাড়ছে উদ্বেগ

Mysepik Webdesk: ভারতে ইতিমধ্যেই বিলেতফেরত ২০ জনের শরীরে মিলেছে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেনের সন্ধান। তাদের মধ্যে ছিল কলকাতার এক যুবক। এবার কলকাতায় দ্বিতীয় এক যুবকের শরীরে মিলল এই ভাইরাসের অস্তিত্ব। প্রথমজন বর্তমানে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে আইসোলেশনে রয়েছেন আর দ্বিতীয় ব্যক্তিকে কলকাতারই একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: পাঁচতারা হেটেলে চলছে বিজেপির দলীয় বৈঠক, সেখানেই স্ত্রী-কন্যাকে নিয়ে হাজির জিতেন্দ্র

New coronavirus strain enters UP, 2-year-old in Meerut found positive

সম্প্রতি জিনের মিউটেশনের বদল ঘটিয়ে আরও বেশি সংক্রামক হয়েছে করোনাভাইরাস। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই নতুন প্রকারের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ক্ষমতা আগের চেয়ে অন্তত ৭০ শতাংশ বেশি। নতুন করোনাভাইরাসের এই স্ট্রেন প্রথম দেখা গিয়েছে ব্রিটেনে। মাত্র কয়েকদিনের মধ্যেই ব্রিটেন থেকে এই নতুন ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে। সেই তালিকায় রয়েছে ভারতও। এই শহরেও দু’জনের শরীরে দেখা মিলেছে নতুন প্রজাতির এই করোনাভাইরাস। গত ২০ ডিসেম্বর বিমানে কলকাতা ফেরার পরই একজনের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। যদিও ওই যুবকের শরীরে কোনও উপসর্গ পাওয়া যায়নি। কিন্তু ওই যুবকের শরীরে মিলেছে ব্রিটেনের নতুন স্ট্রেন।

আরও পড়ুন: পিছিয়ে গেল উচ্চমাধ্যমিকের ৩০ জুনের পরীক্ষা, নতুন তারিখ ঘোষণা পর্ষদের

New strain of coronavirus not seen in India so far: Government, India News  News | wionews.com

এদিকে কলকাতার যে ছাত্রের শরীরে ব্রিটেনের নতুন স্ট্রেনের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে, সেই সহযাত্রী ও বিমানকর্মী মিলিয়ে মোট ২২২ জনের আরটি-পিসিআরে কোভিড টেস্ট করানো হবে। অন্যদিকে দ্বিতীয় যে ব্যক্তির শরীরে ওই নতুন স্ট্রেন মিলেছে, তিনি গত ৮ ডিসেম্বর ব্রিটেন থেকে ফেরেন কলকাতায়। তবে তাঁর শরীরে নতুন স্ট্রেন রয়েছে কিনা, তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবুও তাঁর সঙ্গে বিমানে আসা যাত্রীদের ওপরেও নজর রাখা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বারবার বলছেন, নতুন স্ট্রেন নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। তবে এই সবকিছুর মধ্যেও বিশেষজ্ঞদের দাবি, এই ঘটনায় আতঙ্কের কোনও কারণ নেই। করোনা-বিধি মানলেই সংক্রমণ থেকে রেহাই মিলতে পারে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *