পাকিস্তানের বিমানে চুম্বনরত যুগল, তোলপাড় নেটদুনিয়ায়

Mysepik Webdesk: করাচি-ইসলামাবাদ উড়ানে এক যুগলের চুম্বনের ঘটনা নিয়ে উত্তাল নেটদুনিয়া। চাঞ্চল্যকর ওই ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের একটি বেসরকারি বিমান সংস্থা এয়ারব্লু -এর একটি উড়ানে। জানা গিয়েছে, ওই যুগল বিমানের চতুর্থ শ্রেণীর একটি আসনে বসেছিলেন। চুম্বনরত অবস্থায় তাঁদেরকে দেখে এক বিমানসেবিকা তাঁদের একটি কম্বলও দিতে চেয়েছিলেন। যদিও তাঁর কথায় কান দেননি ওই যুগল। ঘটনাটি গত ২০ মে -এর।

আরও পড়ুন: ইসরাইল ইস্যু: কাতারের নীতিতে পরিবর্তন আসবে না

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ওই যুগল বিমানে বসার পরেই চুম্বনে লিপ্ত হয়। তাঁদের দেখে বিমানের অন্যান্য যাত্রীরা আপত্তি জানালেও তাঁরা কারও কথায় কান দেয়নি। বিমান সেবিকাদের ঘটনাটি জানানো হলে তাঁরা ওই যুগলকে বাধা দেয়। কিন্তু তাতেও তাঁরা দমেনি। অগত্যা বাধ্য হয়েই এক বিমানসেবিকা তাঁদেরকে একটি কম্বল দেন। তাঁদের বলা হয়, তাঁরা যা খুশি ওই কম্বলের ভেতরেই করতে পারে। এতে কারও অসুবিধা হবে না। কিন্তু তাতেও রাজি হন না ওই যুগল। ওই যুগলের দাবি, তাঁরা যা খুশি তাই করবে, তাতে কারও কোনও আপত্তি থাকার কথা নয়। এর পরেই ওই ঘটনাকে ঘিরে ওই উড়ানে চরম শোরগোল শুরু হয়ে যায়। ঘটনাটি জানাজানি হতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়ে যায় মিমের বন্যা।

আরও পড়ুন: ইয়াস যেতে না যেতে তৈরি ‘গুলাব’, ঘূর্ণিঝড়ের নাম রাখল পাকিস্তান

এদিকে ওই উড়ানে থাকা আইনজীবী বিলাল ফারুক আলভি অবশেষে ওই যুগলের বিরুদ্ধে এবং এয়ারলাইন্সের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের অসামরিক বিমান পরিবহণ কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভিযোগে তিনি বিমান সংস্থা এবং ওই যুগলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান। গোটা ঘটনাটি তিনি বর্ণনা করার পাশাপাশি জানান যে তাঁদের থামানোর পরিবর্তে বিমানসেবিকা তাঁদের কম্বলের ভেতরে চুম্বন করার জন্য অনুরোধ করেছিলেন। অভিযোগ পেয়েই নড়েচড়ে বসে অসামরিক বিমান পরিবহণ কর্তৃপক্ষ। তাঁরা জানায়, অবিলম্বে তাঁরা ওই ঘটনার তদন্ত করবে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে ওই বিমান সংস্থা এবং যুগলের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *