‘দিদির দূত’কে ‘যমের দূত’ বলে কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

Mysepik Webdesk: তৃণমূল সরকারকে রাজ্যের প্রতিটি জেলায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য ‘দিদির দূত’ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এই অ্যাপের মাধ্যমে তৃণমূল সরকারের দীর্ঘ দশ বছরের কাজের খতিয়ান পৌঁছে যাবে জেলায় জেলায়। বিভিন্ন গাড়িতে জেলায় জেলায় ঘুরে প্রদর্শন করা হবে এই অ্যাপের। কিন্তু তৃণমূলের এই প্রকল্পকে ব্যঙ্ক করে ‘যমের দূত’ বললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি জানান, “এর আগে মুখ্যমন্ত্রী যেমন সব ব্যাপারে ঢপ দিতেন, এটাও সেরকম একটা ঢপ।”

আরও পড়ুন: ডিওয়াইএফআই-এর যুবনেতার মৃত্যুকে ঘিরে পুলিশ মর্গের সামনে বিক্ষোভ বামেদের

Image result for didir dut

এদিন সাংবাদিকদের দিলীপ ঘোষ বলেন, “জয় শ্রী রামে পালিয়ে গেল সব ভূত, এবার পাড়ায় পাড়ায় যমের দূত। এতদিন পর্যন্ত দিদির কোনও প্রকল্প সফল হয়নি। এর আগে তিনি যেমন প্রত্যেকটি ব্যাপারে ঢপ দিতেন, এটাও সেরকমই একটা ঢপ। ওদের নেতারাও বেরোচ্ছে না মার খাওয়ার ভয়ে। আর পাবলিক তাদের খুঁজছে যে সব নেতারা কাটমানি খেয়েছে। এসব হল লোক দেখানো।” তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও তিনি শাসক দলের ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পকে ব্যঙ্গ করে ‘যমের দুয়ারে সরকার’ বলে ব্যঙ্গ করেছিলেন। এবার ‘দিদির দূত’কেও আক্রমণ করতে ছাড়লেন না তিনি।

আরও পড়ুন: মইদুল ইসলাম মিদ্দার মৃত্যু নিয়ে কী জানালেন ফিরহাদ হাকিম

Image result for didir dut

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার বাংলা সফরে এসেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ঐদিন সন্ধ্যায় সায়েন্স সিটি অডিটোরিয়ামে ‘মোদিপাড়া’ নামের একটি অ্যাপের উদ্বোধন করেন তিনি। তিনি জানান, বিজেপি সমর্থকদের এক ছাদের তলায় আনতে দলের এই উদ্যোগ। রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে রাজ্যে আরও প্রচারের উদ্দেশ্যেই বিজেপির এই অ্যাপের সূচনা। বিজেপির ফেসবুক, ট্যুইটার, হোয়াটস অ্যাপের তথ্য সবকিছুই এই একটি মাত্র অ্যাপের মধ্যে নিয়ে আসা হবে। পাশাপাশি সবরকমের দলীয় কর্মসূচি সম্পর্কে বিশদে জানা যাবে এই অ্যাপের মাধ্যমেই। বিশেষজ্ঞের মতে, ‘মোদিপাড়া’ অ্যাপের পাল্টা অ্যাপ হিসেবে তৃণমূলের প্রচার চালানোর জন্যই সরকারের এই নয়া উদ্যোগ।

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *