বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে রাজ্যে বেশ কিছু মানুষের মৃত্যু, মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ

Mysepik Webdesk: স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে ফের তৃণমূলের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ। গত কয়েকদিনে রাজ্যে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে বেশ কিছু মানুষের মৃত্যু হয়েছে। পাশাপাশি মৃতদেহ নিয়ে রাজনীতির বিষয়ে দিলীপ ঘোষ কটাক্ষ করলেন রাজ্যের শাসক দলকে।

আরও পড়ুন: ভবানীপুর উপনির্বাচন নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের চরম ভর্ৎসনার মুখে নির্বাচন কমিশন

প্রসঙ্গত, মগরাহাটের বিজেপি নেতা মানস সাহার দেহ নিয়ে বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির দিকে যাওয়ার চেষ্টা করেন বিজেপি নেতারা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রকাশ্য সভা থেকে এই আচরণের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। এই প্রসঙ্গেও আজ মন্তব্য করলেন দিলীপ ঘোষ। এদিন তিনি বলেন, “আমি দিদিকে ও তার ভাইদেরকে জিজ্ঞাসা করতে চাই, মৃতদেহ নিয়ে রাজনীতি কে শুরু করেছিল? বীরভূম, হুগলি, মুর্শিদাবাদ থেকে মৃতদেহ নিয়ে এসে কলকাতায় রাস্তায় বসে থাকতেন উনি। উনি এই কালচার বাংলায় নিয়ে আসেন। আপনি ঢিল মেরেছেন। পাটকেল তো খেতেই হবে।” 

আরও পড়ুন: কড়েয়া এলাকার বিস্ফোরণের তদন্তভার দেওয়া হোক NIA -কে, দাবি তথাগতর

দিলীপ ঘোষ (আরও বলেন, “রাজ্যে যে পরিমান বৃষ্টি হয়েছে, তাতে জল জমবেই। দিনকে দিন আরও জল বেশি জমবে। কারন, ড্রেন বন্ধ পরিস্কার করা হয় না আর যত ফাঁকা জায়গা ছিল, পুকুর ছিল, সেগুলো বুজিয়ে দেওয়া হয়েছে। সিপিআইএম আমল থেকে শুরু হয়েছিল এইধরনের সিন্ডিকেট প্রমোটিং। এই ব্যাপারে সরকারের কোনও দায়-দায়িত্ব নেই। দলের নেতারা এমনভাবে কথা বলছেন, যেন মনে হচ্ছে তাঁদের কোনও দায় নেই।” এছাড়াও তৃণমূল নেতারা অমানবিকভাবে কথা বলছেন বলে অভিযোগ করেছেন দিলীপ ঘোষ। রাস্তার ধারে লোহার ত্রিফলাই এখন যমদূত হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। দিলীপ ঘোষ দাবি করেন, সরকারের এখনই ব্যবস্থা নেওয়া উচিত যাতে আর কোনও প্রাণহানি না হয়।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *