জেলের খাবারে অরুচি, আরিয়ানের স্বাস্থ্য নিয়ে চিন্তিত জেল কর্তৃপক্ষ

Mysepik Webdesk: মান্নাতের মত প্রাসাদে জন্ম তাঁর। সেখানেই বেড়ে ওঠা। সুতরাং তাঁর জেলের খাবার পছন্দ হওয়ার কথা নয়। মাদককাণ্ডে গ্রেফতার হওয়ার পর বর্তমানে তাঁর ঠিকানা মুম্বইয়ের আর্থার রোড জেল। কয়েদি নম্বর ৯৫৬। স্বাভাবিকভাবেই জেলের খাবার তাঁর কিছুতেই পছন্দ হওয়ার কথা নয়। বাস্তবে ঘটছেও তাই। কিছুতেই রুচি আসছে না জেলের খাবারে। খেতেও চাইছেন না ঠিকমতো। এভাবে আরও কিছুদিন চলতে থাকলে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন, এমনটাই আশঙ্কা করছেন জেল কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন: এমন কিছু ভালো কাজ করবেন যাতে সবাই গর্বিত হবে, এনসিবি ডিরেক্টরকে কথা দিলেন আরিয়ান

আর্থার রোড জেল সূত্রে খবর, সম্প্রতি শাহরুখ-পুত্র আরিয়ানকে বারাকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। সেখানেই গিয়েও শান্তি নেই ষ্টার-কিডের। কিছুতেই জেলের যাদব-কায়দার সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারছেন না তিনি। কথাও বলছেন না কারোর সঙ্গে। শুধু তাই নয়, মাদক-কাণ্ডে ধৃত অন্যান্য অভিযুক্তদের সঙ্গেও কথা বলতে চাইছেন না তিনি। সবসময়ই কেমন যেন মনমরা ভাব। যদিও তাঁর স্বাস্থ্যের দিকে ২৪ ঘন্টা নজর রাখছেন চিকিৎসকরা। নিয়ম মেনে কাউন্সিলিংও করা হচ্ছে আরিয়ানের।

আরও পড়ুন: উৎসবের ঋতু, ঋতুর উৎসব

কাউন্সিলিং চলাকালীনই এনসিবি-র মুম্বাই ইউনিটের ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়েকে আরিয়ান খান প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তিনি এমন কিছু ভালো কাজ করবেন যাতে সবাই গর্বিত বোধ করবে৷ তাঁকে নেশামুক্ত করে, ফের সাধারণ জীবনে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছেন তাঁরা। সূত্রের খবর, NCB-র সঙ্গে যথেষ্ট সহযোগিতা করছেন আরিয়ান। জেল থেকে বেরিয়ে কী করবেন, তাও জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সংস্থার আধিকারিকদের। আরিয়ান জানিয়েছেন, জেল থেকে মুক্তির পরই তিনি গরিব এবং পিছিয়ে পড়া মানুষের সামাজিক এবং আর্থিক উন্নয়নের জন্য কাজ করবেন। শুধু তাই নয়, ভুল কারণে সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে আসতে হয়, এমন কোনও কাজও তিনি করবেন না। এনসিবি কর্তাকে আরিয়ান বলেন, “আমি এমন কিছু করব যাতে আপনি একদিন আমাকে নিয়ে গর্ব বোধ করবেন।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *