হাতে আর মাত্র কয়েকঘন্টা, দেশজুড়ে বদলে যাচ্ছে গাড়ি চালানোর নিয়ম, জানুন বিস্তারিত

Fastag

Mysepik Webdesk: হাতে আর মাত্র কয়েক ঘন্টা বাকি। সোমবার রাত থেকেই গোটা দেশে বদলে যেতে চলেছে টোল ট্যাক্স ব্যবস্থা। আপনার যদি নিজস্ব গাড়ি থাকে, এবং আপনি যদি এখনও পর্যন্ত গাড়িতে ফাস্ট্যাগ না লাগিয়ে থাকেন, তাহলে আজ রাতের মধ্যেই সেই কাজটি কিন্তু অবশ্যই করে নেবেন। কারণ, সোমবার রাত ১২ টা থেকে প্রতিটি গাড়িতে ফাস্ট্যাগ লাগানো বাধ্যতামূলক করছে কেন্দ্রীয় পরিবহণ মন্ত্রক। আর যদি গাড়িতে ফাস্ট্যাগ (FASTag) না লাগানো থাকে, তাহলে ১৯৮৯ সালের কেন্দ্রীয় মোটর ভেহিকল আইন অনুযায়ী গাড়ির মালিককে নির্ধারিত ফি-এর দ্বিগুণ অর্থ জরিমানা দিতে হবে।

আরও পড়ুন: ফের বাড়ল গ্যাসের দাম, এই নিয়ে একমাসে দু’বার

Image result for fastag

দেশজুড়ে মোট ৭টটি টোলপ্লাজার এবার থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে টোল ট্যাক্স দেওয়ার নিয়ম উঠে যেতে চলেছে। পরিবর্তে গাড়ির সামনের কাঁচে স্টিকারের মতো লাগানো থাকা ফাস্ট্যাগের মাধ্যমে যুক্ত করা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে আপনা আপনি টোল ট্যাক্স কেটে নেওয়া হবে। এর ফলে লাইনে দাঁড়িয়ে টোল ট্যাক্স দিতে না হওয়ার জন্য যানজট হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে না। যাত্রীবাহী এবং পণ্যবাহী সমস্ত ধরনের চারচাকার ক্ষেত্রেই এই নতুন নিয়ম প্রযোজ্য হবে। ২০১৪ সালে প্রথম ফাস্ট্যাগ ব্যবস্থা চালু করা হলেও টা এতদিন পর্যন্ত বাধ্যতামূলক ছিল না। তবে এবার তা বাধ্যতামূলক করা হতে চলেছে।

আরও পড়ুন: ভালোবাসার দিনে পুলওয়ামা হামলার ঘটনা ভুলে গেলে চলবে না

Image result for fastag

জেনে নিন, কীভাবে পাবেন এই ট্যাগ। ব্যাঙ্ক, ই-কমার্স সংস্থা ডিজিটাল ওয়ালেট মারফত এই ট্যাগ সহজে কেনা যাবে। পাশাপাশি প্রতিটি টোলপ্লাজাতে এই ট্যাগ কেনার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই ট্যাগ রিচার্জ করতে দু’টি বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করা সম্ভব। প্রথমত, যে ব্যাঙ্ক থেকে ফাস্ট্যাগ কিনবেন, সেখানেই একটা ওয়ালেট তৈরি করে দেবে। তা ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, ক্রেডিট কার্ড বা ডেবিট কার্ড এবং ইউপিআই মারফত রিচার্জ করা যাবে। দ্বিতীয়ত, পেটিএম বা ফোনপে-র মতো মোবাইল পেমেন্ট অ্যাপ দিয়েও ফাস্ট্যাগ রিচার্জ করানো সম্ভব। ফাস্ট্যাগে ইস্যু করার পর পাঁচ বছর পর্যন্ত ইটের বৈধতা থাকে। প্রতিটি ফাস্ট্যাগের দাম পড়ে ৪০০ টি ৫০০ টাকার মতো। এর মধ্যে সিকিউরিটি ডিপোজিট বাবদ টো০ টাকা জমা রাখা হয়, বাকি টাকা ফেরত পাওয়া যাবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *