লোকাল ট্রেন চালাতে রাজ্য সরকারকে আবেদন পূর্ব রেলের

Mysepik Webdesk: করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ দেশজুড়ে আছড়ে পড়ায় এবং করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় গোটা দেশের পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গেও জারি করা হয়েছিল একাধিক বিধিনিষেধ। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল বাস, ট্যাক্সি এবং লোকাল ট্রেনের মতো গণপরিবহন ব্যবস্থা। তবে ইদানিং গোটা দেশের পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতি একটু একটু করে স্বাভাবিক হচ্ছে এই রাজ্যেও। দেশজুড়ে বাড়ানো হচ্ছে স্পেশাল ট্রেনের সংখ্যাও। এবার বাংলায় লোকাল ট্রেন চালানোর অনুমতি চেয়ে রাজ্য সরকারকে আবেদন জানাল পূর্ব রেল।

আরও পড়ুন: গেরুয়া শিবিরে ‘ভাঙন’ ধরাতে মুকুল রায় ফোনে কথা বললেন বিজেপির সাংসদ-বিধায়কদের সঙ্গে!

এই মুহূর্তে শিয়ালদা ও হাওড়া ডিভিশন মিলিয়ে প্রায় ৩৪০টি স্টাফ স্পেশাল ট্রেন চালু আছে। তবে ওই সব ট্রেনে সাধারণ যাত্রীদের পরিবহন নিষিদ্ধ। শুধুমাত্র রেলের কর্মী এবং জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত যাত্রীরাই ওই ট্রেনে যাতায়াত করছেন। কিন্তু ট্রেনের ওই সংখ্যাটা যথেষ্ট নয় বলেই মনে করছেন পূর্ব রেলের কর্তৃপক্ষ। কারণ যত দিন যাচ্ছে, যাত্রী সংখ্যা বাড়ছে। ফলে ট্রেনের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব হচ্ছে না। সেই কারণেই লোকাল ট্রেনের পরিষেবা যাতে স্বাভাবিক করা যায়, সেইজন্য রাজ্য সরকারের অনুমতির অপেক্ষায় রয়েছে পূর্ব রেল আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন: গোয়ালের গরু দড়ি ছিঁড়ে বেরিয়ে গিয়েছিল, আবার ধরে আনা হল, মুকুলের তৃণমূলে যোগদান প্রসঙ্গে জানালেন অনুব্রত

এদিকে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে শুরু করায় বাড়ানো হচ্ছে স্পেশাল ট্রেনের সংখ্যা। যেসব রুটে যেমন যেমন যাত্রী সংখ্যা বাড়ছে, ওই সব রুটে সেই হিসেবেই ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। তবে দূরপাল্লার ট্রেনে ভ্রমণের ক্ষেত্রে রয়েছে বেশকিছু করোনা বিধিনিষেধ। আগামী ১৬ জুন থেকে আরও কিছু স্পেশাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। তবে যতদিন না পর্যন্ত রাজ্য সরকার ট্রেন পরিষেবা শুরু করার সম্মতি দিচ্ছে, ততদিন পর্যন্ত লোকাল ট্রেন এবং মেট্রো পরিষেবা শুরু করা সম্ভব হচ্ছে না।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *