করোনা কালে নির্বাচন, কমিশনের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ হাইকোর্ট

Mysepik Webdesk: করোনাবিধি মেনে প্রচার করার নির্দেশ দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন, কিন্তু সেই নির্দেশ অমান্য করার একাধিক ছবি উঠে এসেছে রাজ্যজুড়ে। আর তাঁর ফলে রাজ্যে হু হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। শুধুমাত্র সাধারণ মানুষ নয়, আক্রান্ত হচ্ছেন নেতা-মন্ত্রীরাও। সেই কারণেই এবার পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা ভোটে নির্বাচন কমিশনের ভূমিকায় অসন্তোষ প্রকাশ করছে কলকাতা হাইকোর্ট। এদিন প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ এ দিন টি এন শেষনের আমলের সঙ্গে তুলনা করছে।

আরও পড়ুন: ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে মদন মিত্রর

এদিন প্রচার বন্ধের আবেদন সংক্রান্ত শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি জানান, করোনা আবহে ভোট প্রচার করতে ব্যর্থ হয়েছে নির্বাচন কমিশন। নিজেদের হাতে সব ক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও কমিশন শুধুমাত্র নির্দেশ দিয়েই ক্ষান্ত থেকেছে। টি এন শেষনের আমলে কমিশন যতটা কড়া ছিল, তার দশ ভাগের এক ভাগ কড়া মনোভাব দেখানো উচিত কমিশনের। শুধুমাত্র একটি নির্দেশিকা জারি করে সব দায়ভার সাধারণ মানুষের ওপর ছেড়ে দেওয়া উচিত হয়নি কমিশনের।

আরও পড়ুন: কোভিড আক্রান্ত মন্ত্রী সাধন পাণ্ডে

হাইকোর্টের বক্তব্য অনুযায়ী, কমিশনের কাছে পুলিশ থেকে অফিসার সবই আছে । তা সত্ত্বেও তাদের কোনও কাজে লাগানো হচ্ছে না। ক্যুইক রেসপন্স টিম কিংবা RAF -এর ব্যবহার করা ভীষণ জরুরি ছিল। আপনাদের কাজে আদালত অসন্তুষ্ট। নিছক বিজ্ঞপ্তি জারি নয়, করোনা বিধি মেনেই যাতে রাজনৈতিক দলগুলি তাদের প্রচারের কাজ করতে পারে, তা নিশ্চিত করতে অবিলম্বেই দৃঢ় পদক্ষেপ নিতে হবে নির্বাচন কমিশনকে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *