Latest News

Popular Posts

কানাডায় জরুরি অবস্থা: বরখাস্ত হলেন অবরোধ দমনে ব্যর্থ অটোয়া পুলিশ প্রধান

কানাডায় জরুরি অবস্থা: বরখাস্ত হলেন অবরোধ দমনে ব্যর্থ অটোয়া পুলিশ প্রধান

Mysepik Webdesk: কানাডায় দু-সপ্তাহ জুড়ে চলছে অচলাবস্থা। মার্কিন সীমান্তে মন্টানা রুটে গত দু-সপ্তাহ ধরে ট্রাক এবং অন্যান্য যানবাহন ধর্মঘট চলছে। যানবাহনগুলি দক্ষিণ আলবার্টার শহরগুলির মধ্য দিয়ে চলতে শুরু করেছে। করোনা টিকাকরণ বাধ্যতামূলক ঘোষণা করার পর দেশটির ট্রাকচালকরা ধর্মঘটের মধ্য দিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ার পর দীর্ঘ ৫০ বছর পর দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করেছে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। ধর্মঘটের মধ্যে দিয়ে যাতে অশান্তি ছড়িয়ে পড়তে না পারে, জায়গায় জায়গায় পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। তবে বিষয়টি সঠিকভাবে পরিচালনা না করার জন্য সমালোচিত অটোয়া পুলিশ প্রধান পিটার স্লোলি বরখাস্ত হয়েছেন।

পুলিশ প্রধান স্লোলি শত শত ট্রাক চালকদের বিক্ষোভে দমনে ব্যর্থ হয়েছেন। অটোয়া পুলিশ সার্ভিস বোর্ডের চেয়ারম্যান ডায়ান ডিনস বলেন, “অটোয়ার অন্যান্য বাসিন্দার মতো আমিও বিক্ষোভ প্রত্যক্ষ করেছি।” অন্যদিকে, স্লোলি একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন― তিনি শহরকে নিরাপদ রাখতে যথাসাধ্য করেছেন। তবে, তিনি অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতিরও মুখোমুখি হয়েছেন, একথাও জানিয়েছেন। যদিও সরকারের কড়া হাতে বিদ্রোহ দমনের হুঁশিয়ারির ঘোষণার পর বিক্ষোভের আঁচ অনেকটাই কম হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো জানিয়েছিলেন, জরুরি অবস্থার সময় সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হবে না। তবে পুলিশকে বিক্ষোভকারীদের গ্রেপ্তার এবং তাঁদের ট্রাক জব্দ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এমনকী আন্দোলনকারীদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টও জব্দ করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেয় ক্ষমতাসীন সরকার। বলা হয় যে, আদালতের নির্দেশ ছাড়াই ব্যাঙ্কগুলি বিক্ষোভকারীদের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট জব্দ করতে পারবে। অটোয়া পুলিশ বোর্ড জানিয়েছে, প্রায় ৪,০০০ যানবাহন বিক্ষোভে শামিল ছিল। এখন তা ৩৬০-এ নেমে এসেছে।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *