৪৭ বছর পরেও গাভাস্করের মনে অম্লান মাঠের মধ্যে চুল কাটার স্মৃতি

শুভ্রাংশু রায়

সেটা ছিল ১৯৭৪ সাল। তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ইংল্যান্ডে গিয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল। প্রথম টেস্ট ম্যাঞ্চেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে। খেলা শুরু হয়েছিল ৬ জুন তারিখে। অজিত ওয়াদেকারের নেতৃত্বাধীন এই টেস্ট সিরিজ বিভিন্ন কারণে ইতিহাসে বিশেষভাবে আলোচিত। যার মধ্যে ভারতীয় ক্রিকেট ৪২ রানে অলআউট ঘটনাও ছিল, যা তামাম বিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে ‘সামার অফ ৪২’ হিসেবেও পরিচিত হয়ে আছে আজকেও।

তবে এছাড়াও আরেকটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা ঘটেছিল প্রথম টেস্টে, ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের মাঠে। ম্যাঞ্চেস্টারে অনুষ্ঠিত টেস্ট ম্যাচে তৃতীয় দিনে। প্রথমে ইংল্যান্ড ব্যাট করে ৩২৮ তুললে ভারত দ্বিতীয় দিনে ব্যাট করতে নামে। তৃতীয় দিনে ভারতের হয়ে দুর্গ সামলাতে এগিয়ে আসেন মূলত সুনীল গাভাস্কর। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের ঝোড়ো হওয়ায় ইংল্যান্ডের পেসার বব উইলিস, ক্রিস ওল্ড এবং মাইক হেন্ড্রিককে খেলে ভারতীয় দলের প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টায় রত হন সুনীল।

আরও পড়ুন: মনোহর আইচ: পান্তা ভাতের জল, তিন জোয়ানের বল

এই সময় মাঠে একটি অভূতপূর্ব ঘটনা ঘটে যায়। গাভাস্করের সামনের দিকে চুলের একটি অংশ বারবার তাঁর দৃষ্টির ব্যাঘাত  ঘটাচ্ছিল। সটান সুনীল সমস্যা নিয়ে দ্বারস্থ হন ম্যাচের অন্যতম আম্পায়ার ডিকি বার্ডের কাছে। ডিকি সবাইকে মাঠে অবাক করে দিয়ে পকেট থেকে একটি ছোট কাঁচি দিয়ে সুনীলের কপালের ওপর ঝুলে পড়া চুলের অংশটি কাঁচি দিয়ে কেটে দেন। পরবর্তী সময়ে ডিকি বার্ড স্মৃতিচারণা করে লিখেছেন, তিনি মাঠে ম্যাচ পরিচালনার জন্য যে সমস্ত জিনিসপত্র সঙ্গে রাখতেন, তাঁর মধ্যে ছোট কাঁচি অন্যতম। সেদিন সেই কাঁচির সাহায্যে সুনীল গাভাস্করের সমস্যা করা চুলের অংশটি কেটে দিয়েছিলেন। ঘটনায় আল্পুত ছিলেন সুনীল নিজেও।

আরও পড়ুন: ‘পকেট হারকিউলিস’ হার মেনেছিলেন

তবে এই ঘটনা ৪৭ বছর পরে আজও গাভাস্করকে স্মৃতিমেদুর করে তুলে তার প্রমাণ আজকের দিনেই সুনীল গাভাস্কর নিজের অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্ট করে সেদিনের সেই ঘটনার কথা উল্লেখ করেছেন। অবশ্য গাভাস্কর এই ইনস্টাগ্রাম পোস্ট এই দিনের গুরুত্বকে শুরুতে তুলে ধরছেন এই কথা উল্লেখ করে যে, এই দিনই তিন বছর পরে টেস্ট ম্যাচে শতরানের অধিকারী হন তিনি, যা তাঁর আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে এনেছিল। তিনি এই পোস্টে সেই ট্যুরে ইংল্যান্ড ক্যাপ্টেন মাইক ডেনিসের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন এই বলে যে শতরান করার পরে মাঠের মধ্যে এক ক্রেজি ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীর  ‘অতি ভালোবাসার’ হাত থেকে বাঁচিয়েছিলেন। আর তারপর সেই মাঠের মধ্যে চুল কাটার প্রসঙ্গ। ঘটনাচক্রে সেদিনের এই ঘটনা রেকর্ড বুকে সুনীল গাভাস্করের নাম অক্ষয় করে রেখেছে। কী হিসেবে বলুন তো? হ্যাঁ ঠিকই ধরেছেন, একমাত্র ক্রিকেটার যিনি মাঠের মধ্যে খেলা চলাকালীন চুল কেটেছিলেন। ক্রিকেট ভারী মজার খেলা। তাই না!

লেখক সোনারপুর মহাবিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

8 comments

  • খেলার ইতিহাসে এই ধরনের কতই না স্মৃতি আছে আমাদের জানার বাহিরে। লেখককে ধন্যবাদ এই একটি সুন্দর ঘটনা উপস্থাপন করার জন্য।

  • লেখাটি খুব সুন্দর হয়েছে। ক্রীড়া জগতের আরও অজানা তথ্য আপনার লেখায় খুঁজে পাবো এই আশায় রইলাম ।

  • Debashis Majumder

    Khub Sunday bhabe ghotonata uthe eshechhe ei lekhate. Ei series ti bohu bishayei ghotonabohul. Suru Nayek er Oxford Street er shop e sock lifting er ghotonao ei series cholakalin I Ghote. Indian High Commissioner er songe Indian team er meeting sonkranto bitorkotiyo ei series ei ghote. Series er age Ajit Wadekar chhilen national hero. Ei series er por tar sudhu captainship noi pure international cricket career sesh hoye Jay. Emonki tini team er sange deshe phirteo parenni.

  • খুব ভালো লাগলো। সুন্দর বিশ্লেষণ।

  • Subhankar Biswas

    প্রতিবারের মতোই সমৃদ্ধ হলাম।

  • Paramita Ghosh

    খেলা নিয়ে এতটা আবেগপ্রবণ না হওয়ার সত্বেও এই তথ্য গুলো ভীষণই উত্তেজিত করে…. আপনার প্রতিস্থাপনের মধ্যে দিয়ে নতুন রূপ পায়…. আশা করি আগামীতেও আরো অনেক অজানা তথ্য সম্পর্কে অবগত হতে পারবো ….
    ধন্যবাদ

  • নবনীতা বসু

    প্রিয় গাভাসকারের অনেক কথা পড়েছি। এইটা ছাড়া।
    বেশ উপভোগ্য।

  • Shankhamala Ray

    Mon bhalo kora lekha

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *