ঘুড়ির সুতোর চিনা মাঞ্জায় দুর্ঘটনা এড়াতে মা উড়ালপুলে বসানো হচ্ছে ফেন্সিং

Mysepik Webdesk: বাইক আরোহীদের কাছে মা উড়ালপুলের আতঙ্ক চিনা মাঞ্জা। ইতিমধ্যেই চিনা মাঞ্জা দেওয়া ঘুড়ির সুতোর জন্য মা উড়ালপুলে একাধিকবার দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন বাইক আরোহীরা। তবে এবার সেই দুর্ঘটনা আটকাতে কেএমডিএর উদ্যোগে শুরু হচ্ছে ফেন্সিং দেওয়ার কাজ। কেএমডিএ সূত্রে জানা গিয়েছে এই ফেন্সিং-এর কাজ পুজোর আগেই শেষ করার লক্ষমাত্রা নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: ইয়ুথ ইন পলিটিক্সে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে যুবকদের তৃণমূলে যোগদান, খুশি বিধায়ক সহ অন্যান্য সদস্যরা

গত কয়েক বছরে উড়ালপুল সংলগ্ন বাড়ি ও ফাঁকা জায়গা থেকে ঘুড়ি ওড়ানোর সময়ে চিনা মাঞ্জার কারণে আহত হয়েছেন একাধিক বাইক আরোহী। কয়েকদিন আগেই এক চিকিৎসক ওই একই কারণে সাংঘাতিক জখম হয়েছিলেন। বার বার এই একই রকমের দুর্ঘটনা ঘটায় এবার নড়েচড়ে বসেছে মা উড়ালপুলের তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে থাকা কেএমডিএ। সেই কারণেই কলকাতা ট্র্যাফিক পুলিশের কাছে উড়ালপুলের দু’ধারে জাল বসানোর প্রস্তাব পাঠানো হয়। কয়েকদফা পরিদর্শনের পরেই সিদ্ধান্ত হয়, উড়ালপুলের ওপর ফেন্সিং দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: জল ছাড়াই খাঁকি ক্যাম্বেল হাঁস প্রতিপালনে কর্মহীন পরিবারের ফিরতে পারে বরাত

এর ফলে ঘুড়ির মাঞ্জা দেওয়া সুতো মোটরবাইক আরোহীদের গায়ে এসে পরে দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা কমবে। এছাড়াও ওই সুতো জালের ওপারে এসে পড়লে তা সঙ্গে সঙ্গে যাতে ছিড়ে যায়, সেই ব্যবস্থাও করে রাখা হয়েছে। জানা গিয়েছে উড়ালপুলের প্রায় তিন কিলোমিটার অংশে এই ফেন্সিং দেওয়া হবে। চার নম্বর ব্রিজ থেকে শুরু করে সায়েন্স সিটির আগে বোট ক্লাব পর্যন্ত এই ফেন্সিং লাগানো হবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *