‘রক্ষকই যখন ভক্ষক’, গুরগাঁওয়ে হেড কনস্টেবলের বিরুদ্ধে FIR নির্যাতিতার

Rape

Mysepik Webdesk: হরিয়ানার গুরগাঁও পুলিশের এক হেড কনস্টেবলের বিরুদ্ধে এক মহিলা ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন। শনিবার বছর ছত্রিশের ওই মহিলা দ্বারকা থানায় ‘জিরো এফআইআর’ (জিরো এফআইআর যে কোনও থানায় করা যায়। কোথায় কোন থানা এলাকায় ঘটেছে, তার উপর এফআইআর নির্ভর করে না।) দায়ের করেছেন। পরে সেটি দ্বারকা থানা থেকে গুরগাঁও পুলিশের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: হাতরসের ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি খোদ যোগী আদিত্যনাথের

জানা গিয়েছে, হরিয়ানা পুলিশের অভিযুক্ত হেড কনস্টেবল সুধীরের বাড়ি রোহতকে। ২০১৭ সালে মহিলার সঙ্গে সুধীরের আলাপ। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই মহিলার বাড়ি উত্তমনগরে। দিল্লির একটি বেসরকারি ব্যাংকে তিনি কাজ করেন। অভিযোগকারি মহিলার বয়ান অনুযায়ী, সেক্টর-৩৯ এর একটি হোটেলে নিয়ে গিয়ে হরিয়ানা পুলিশের ওই হেড কনস্টেবল তাঁকে জোর করে ধর্ষণ করে। সেটি ঘটে ২০১৭ সালেই। তার পর থেকে বিগত তিন বছর ধরে তাকে নানান সময়ে ভয় দেখিয়ে একাধিক বার ধর্ষণ করেছে। এই ঘটনা যেন কাওকে না জানায় তার জন্য হুমকি দেয় সুধীর।

আরও পড়ুন: নিজের মেয়ের অস্ত্রোপচার করছিলেন বাবা, বাঁচাতে না পেরে আত্মঘাতী নিজেই

গুরগাঁও থানার এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, অভিযুক্ত হেড কনস্টেবলের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির (IPC) ৩৭৬ ও ৫০৬ ধারায় মামলা দ্বায়ের করা হয়েছে। একজন ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে খুব শিগগির নির্যাতিতা মহিলার বয়ান নথিভুক্ত করা হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

তবে অভিযুক্ত হেড পুলিশ কনস্টেবলের বক্তব্য, ওই মহিলা তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে অপবাদ দিচ্ছেন। তার বিরুদ্ধে ওই মহিলা কেন ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন, তা তিনি বুঝে উঠতে পারছেন না। তবে সত্য যাতে সামনে বেরিয়ে আসে তার জন্য তিনি যে কোনও ধরনের তদন্তের মুখোমুখি হতে প্রস্তুত রয়েছেন। সুধীর বর্তমানে গুরগাঁও সিটি পুলিশ স্টেশনে পোস্টিং রয়েছেন।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *