পাঁচটি কবিতা

তন্ময় ভট্টাচার্য

মোলাকাত

কিছুই দুঃখের নয়। আনন্দেরও নয় কোনোকিছু।
একটি বিহঙ্গবাক্য। দু’টি হাত। বিলিতি আদব।
পুরনো গানের সূত্রে আমাদের দেখা হয়ে গেল।
জীবন, অতীতস্পর্শ, কোনোদিন বিরহে হেসেছ?

তাঁকে

যেন একটি সাদা ফুল—
বৃক্ষ নেই বেদি নেই
হেঁটে হেঁটে চলে যাচ্ছ, কাঁধে ব্যাগ, ও ইহজগৎ

যেন একটি শুভকাল
অনিষ্ট ভুলিয়ে দিতে স্নেহ নামল দশক-দশক

যেন গৌতম
যেন বসু, আমরা বইমেলা-মাঠ

বর্ষা

জমেছে, নেমেও যাবে
এমন সহজ ভাবলে
রাগ কিংবা থইথই— সকলই আয়ত্তে এসে যায়

আরও পড়ুন: আয়ুবিষয়ক

মধ্যরাত

সমস্ত কুকুরের একসঙ্গে জেগে ওঠা মানে তা রাতের ব্যর্থতা।
পাহারাদারের ঝুলি। শূন্য থেকে নেমে আসা টর্চলাইট। ট্রেনের বিকার।
গোঙাতে গোঙাতে কেউ চলে যাচ্ছে। মাঝপথ। ছিঁড়ে ফেলা রতিসুখসার।

আমার কবিতা জন্ম দিতে চাইল তোমাকে আবার…

মর্গ

বহুদিন হয়ে গেল মৃত্যুসংবাদ ঘরে লুকিয়ে রেখেছি।
কী লাভ প্রকাশ্যে এনে! পাড়া জানাজানি হবে, থানা ও পুলিশ—
শোকের চাদর টেনে অশৌচপালন— পিণ্ড কে কাকে খাওয়ায়
আজও তা বুঝিনি; শুধু হাত জানে, মরে ভূত সে কোন আমল—
জনৈকা কবিতা এলে, তিরিক্ষি মেজাজ, আমি স্পর্শ করি তাঁর…

Facebook Twitter Email Whatsapp

3 comments

  • Sunil Sharmacharya (sunil acharya)

    সুন্দর জীবন দেখনের নতুন অনুভূতির কবিতা

  • Namrata Santra

    সাবলীল সুন্দর

  • Shuvodeep Nayak

    পাঁচটি কবিতাই সুন্দর লেখা । ভীষণ ভালো ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *