পতাকার ভাঁজে: দিল্লির লালকেল্লায় পতাকা উত্তোলনের অন্য সমীকরণ

ইন্দ্রজিৎ মেঘ

প্রজাতন্ত্র দিবসে কৃষকদের ট্র্যাক্টর র‍্যালিকে ঘিরে চূড়ান্ত বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়েছিল। আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ হিংসায় রূপ নেওয়ার পিছনে দায়ী কে বা কেউ ইন্ধন জুগিয়েছিল কিনা, তা নিয়ে জোর আলোচনা চলছে। তবে কৃষকদের সংগঠনগুলি ট্র্যাক্টর মার্চ চলাকালীন লালকেল্লায় হওয়া হিংসার আরোপ পঞ্জাবি অভিনেতা দীপ সিধুর ওপর চাপিয়েছে। এদিকে, দীপ সিধু একটি ভিডিয়ো প্রকাশ করে বলেছেন, লালকেল্লায় পতাকা তিনিই লাগিয়েছেন। ভারতীয় কৃষক ইউনিয়নের নেতা গুরনম সিং চধুনি অভিযোগ করেছেন যে, কৃষক সংগঠনগুলির  জন্য লালকেল্লা দখলের কোনও প্রোগ্রাম ছিল না। দীপ সিধু কৃষকদের প্ররোচিত করেছিলেন এবং আউটার রিং রোড দিয়ে লালকেল্লা নিয়ে গিয়েছিলেন। কৃষকরা শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। এই আন্দোলন অবশ্যই কোনও ধর্মীয় আন্দোলন নয়।

আরও পড়ুন: লাগামহীন ট্যাক্টর র‍্যালি, ট্যাক্টর উল্টে মৃত ১ কৃষক, উত্তপ্ত ২৬শের রাজধানী, দায়ী খুঁজতে চলছে সুরতহাল

অন্যদিকে, দীপ সিধু জানিয়েছেন যে তিনি লালকেল্লায় পতাকা উত্তোলন করেছেন। তবে তাঁর বিরুদ্ধে করা অভিযোগকে তিনি এড়িয়ে গিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‘কৃষকরা যে নির্ধারিত পথ অনুসরণ নাও করতে পারেন, সেকথা কিছু সংগঠনের নেতারা আগেই জানিয়েছিলেন। তবে ভারতীয় কৃষক ইউনিয়ন তা উপেক্ষা করেছিল।”

তাছাড়াও তিনি খালিস্তানপন্থী বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এনআইএ জানিয়েছে, দীপ সিধু দু’মাস ধরে কৃষক আন্দোলনে সক্রিয় ছিলেন। কিছুদিন আগে শিখস ফর জাস্টিস (এসএফজে)-এর সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের বিষয়ে জাতীয় তদন্ত সংস্থা বা ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এনআইএ) কর্তৃক একটি নোটিশও জারি করা হয়েছিল। দীপ গতবছর আন্দোলনের সময় কিষান ইউনিয়নের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। ওই সময় শম্ভু মোর্চার নামে একটি নতুন কৃষক সংগঠনের ঘোষণা করেছিলেন। খালিস্তানপন্থী চ্যানেলগুলি তাঁর ফ্রন্টকে সমর্থন করেছিল।

আরও পড়ুন: দিল্লিতে ধুন্ধুমার: অমিত শাহের জরুরি বৈঠক, হিংসার নিন্দা কিষান মোর্চার, মোতায়েন হবে অতিরিক্ত সুরক্ষা বাহিনী

গত লোকসভা নির্বাচনে দীপ সিধু গুরুদাসপুরের বিজেপি সাংসদ এবং বলিউড অভিনেতা সানি দেওলের হয়ে প্রচার করেছিলেন। বিজেপির সঙ্গে দীপ সিধুর ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং এমপি সানি দেওলের সঙ্গে তাঁকে দেখা গিয়েছে একই ফোটো ফ্রেমে। কীর্তি কিষান ইউনিয়নের সহ-সভাপতি রাজিন্দর সিং দীপ সিং ওয়ালা বলেছেন যে, ‘‘শুরু থেকেই কেন্দ্রীয় সরকার কৃষক আন্দোলনকে সাম্প্রদায়িক রং দিতে চেয়েছিল। দীপ সিধু সযত্নে তাকে লালিত করেছে।”

আরও পড়ুন: দিল্লিকাণ্ডে আহত ৮৬ পুলিশকর্মী, আহত ১ অধিবাসীও

কৃষক সংস্থার অভিযোগের পর একটি ভিডিয়ো প্রকাশ করেছেন দীপ সিধু। সিধু বলেছেন যে, ‘‘২৫ জানুয়ারি কৃষকনেতা সরওয়ান সিংহ পান্ধের এবং সতনাম সিংহ পান্নু বলেছিলেন, তাঁরা ইউনাইটেড ফার্মার ফ্রন্টের নির্দেশিত রুটে কুচকাওয়াজ করবে না। একই দিনে যুবকরা মোর্চার মঞ্চ কবজা করে নিয়ে জানিয়েছিল যে, তারা পুলিশ-প্রদত্ত রুটে কোনও সমাবেশ করবে না। তা সত্ত্বেও মোর্চা এদিকে কোনও মনোযোগ দেয়নি। এবং ২৬ জানুয়ারি ট্র্যাক্টর প্যারেড নির্ধারিত পথে যায়নি।”

পঞ্জাবের শ্রীমুক্তসর সাহিব জেলায় জন্মগ্রহণ করা দীপ সিধুর একটি ল’ ডিগ্রি রয়েছে। দীপ কিংফিশার মডেল হান্টের বিজয়ী এবং মিঃ ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় মিঃ পার্সোনালিটির খেতাব অর্জন করেছেন। প্রথমদিকে মডেলিংয়ে নামলেও সেখানে সফল হননি। তারপরে বালাজি টেলিফিল্মের আইনি প্রধান ছাড়াও ব্রিটিশ সংস্থা হ্যামন্ডসের সঙ্গে কাজ করেছেন। একইসঙ্গে দীপ তাঁর অভিনয় জীবনের শুরু করেছিলেন ‘রামতা জোগি’ চলচ্চিত্র দিয়ে। ’১৮-তে মুক্তি পায় ‘জোড়া ১০ নম্বরিয়া’। এই সিনেমা থেকেই তাঁর পরিচিতি বাড়ে। ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা, দীপ সিধুর এই কার্যকলাপ আদতে কৃষক আন্দোলনকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে এবং এক্ষেত্রে কোনও স্বার্থরক্ষাকারীদের বিশেষ উদ্দেশ্য দ্বারা দীপ সিধুর পরিচালিত হওয়ার কথা উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

Facebook Twitter Email Whatsapp

2 comments

  • ঠিক ই লিখেছো।

  • সুশান্ত চট্টোপাধ্যায়

    এতদিনের দীর্ঘ সুশৃঙ্খল কৃষক আন্দোলন যখন সমস্ত দেশবাসীর কাছে একটি সুনির্দিষ্ট বার্তা পৌছে দেবার মতো জায়গায় উন্নীত হয়েছে সেইসময় এই ঘটনা সত‍্যিই অত‍্যন্ত বেদনার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *