একটানা তিন দিন দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল ৪ লক্ষ

Mysepik Webdesk: আরও বাড়ছে উদ্বেগ। এই নিয়ে একটানা তিন দিন দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল ৪ লক্ষ। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আগের চেয়ে আরও মারাত্মক আকার ধারণ করেছে ভারতে। ইতিমধ্যেই একাধিক রাজ্য করোনা সংক্রমণ রুখতে লকডাউন ঘোষণা করেছে। তবুও আটকানো যাচ্ছে না সংক্রমণের হার। দেশের স্বাস্থ্য দপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লক্ষ ১ হাজার ৭৮ জন। এই বৃদ্ধির ফলে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ১৮ লক্ষ ৯২ হাজার ৬৭৬ জন। আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে বিশ্বে এই মুহূর্তে ভারতের স্থান আমেরিকার পরেই।

আরও পড়ুন: করোনায় মৃত্যু আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন ছোটা রাজনের, খবরে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া, জানুন আসল সত্যি

আক্রান্তের পাশাপাশি গতবছরের চেয়ে অনেকটাই বেড়েছে মৃত্যুর হার। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৪,১৮৭ জনের, যা দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যার হিসেবে রেকর্ড গড়েছে। এই নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২ লক্ষ ৩৮ হাজার ২৬৬ জনের। অন্যদিকে, আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ কোটি ৭৯ লক্ষ ১৭ হাজার ৮৫ জন। এই মুহূর্তে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যায় ৩৭ লক্ষ ২১ হাজার ৮৮২ জন। সুস্থতার হার ৮১.৯ শতাংশ। টিকাকরণ হয়েছে ১৬ কোটি ৭৩ লক্ষ ৪৬ হাজার ৫৪৪ জনের।

আরও পড়ুন: কৃষক আন্দোলনের জায়গায় করোনার থাবা, মৃত্যু বাঙালি তরুণীর

দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা মহারাষ্ট্রে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় শুধুমাত্র মহারাষ্ট্রে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪৯ লক্ষ ৯৬ হাজার ৭৫৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭৪,৪১৩ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৪,০২২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৮৯৮ জনের। মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে কর্নাটক। গত ২৪ ঘণ্টায় কর্নাটকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮,৭৮১ জন। এই নিয়ে কর্নাটকে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮ লক্ষ ৩৮ হাজার ৮৮৫ জন। এছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় করলে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮,৪৬০ জন। করলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ লক্ষ ২৪ হাজার ৮৫৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫,৬৮৩ জনের। উত্তরপ্রদেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ লক্ষ ৫৩ হাজার ৬৭৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৪,৮৭৩ জনের।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *