ভুলে যান ডেল্টা প্লাসকে, আতঙ্কের নতুন নাম ল্যাম্বডা ভেরিয়েন্ট

Mysepik Webdesk: করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়্যান্ট নিয়ে ইতিমধ্যেই রাতের ঘুম উড়েছে বিশেষজ্ঞদের। তার মধ্যে নতুন করে আতঙ্ক বাড়িয়েছে ল্যাম্বডা ভ্যারিয়েন্ট। দ্রুত ছড়িয়ে যাওয়ার ক্ষমতাসম্পন্ন করোনার এই নতুন ভ্যারিয়েন্টটির প্রথম হদিশ মেলে দক্ষিণ আমেরিকার পেরুতে। সেখান থেকেই ভ্যারিয়েন্টটি ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের ৩০টি দেশে, যা স্বাভাবিকভাবেই চিন্তা বাড়াচ্ছে ভাইরাস বিশেষজ্ঞদের। তবে এখনও পর্যন্ত এই ভ্যারিয়েন্টটি ভারতে মেলেনি বলেই আস্বস্ত করেছেন কেন্দ্রীয় সরকার।

আরও পড়ুন: ঢাকায় বিধ্বংসী অগ্নিকান্ড, আগুনে ঝলসে মৃত ৫২

শুক্রবার একটি সাংবাদিক বৈঠকে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের যুগ্ম সচিব লাভ আগরওয়াল জানান, দ্যা ইন্ডিয়ান সার্স -কোভ -২ জিনোমিক কনসোর্টিয়া বা INSACOG গোটা পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে। INSACOG নিশ্চিত করেছে যে, এখনও পর্যন্ত ভারতে একটিও ল্যাম্বডা ভ্যারিয়েন্টের হদিস পাওয়া যায়নি। ওই একই তথ্য জানিয়েছে নীতি আয়োগের সদস্য ডা. ভি কে পাল। তবে ভারতের বাইরে এখনও পর্যন্ত আমেরিকায় ৬ জন এবং চিলিতে গত দু’ মাসে আক্রান্তদের মধ্যে ৩২ শতাংশের শরীরে পাওয়া গিয়েছে এই ল্যাম্বডা ভ্যারিয়েন্ট। এছাড়াও আর্জেন্টিনা এবং ইকুয়েডরেও দেখা গেছে এই নয়া ভ্যারিয়েন্ট, যেখান থেকেই সেটি বিশ্বের ৩০টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

আরও পড়ুন: ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল দুবাই বন্দর

বিশেষজ্ঞদের মতে, ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে আরও বেশি ভয়াবহ হবে এই ল্যাম্বডা ভেরিয়েন্ট। কারও শরীরে এই ভ্যারিয়েন্ট থাকলে তা দ্রুত হরে অন্যদের শরীরে ছড়িয়ে পড়তে পারে। ল্যাম্বডার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বাজার চলতি ভ্যাকসিনগুলি কতটা কার্যকরী সে বিষয় নিয়ে এখনও গবেষণা চলছে। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, নতুন রূপের এই স্পাইক প্রোটিন একের পর এক মিউটেশন ঘটিয়ে আরও বেশি সংক্রামক হয়ে উঠছে, যা সহজেই মানবদেহের উপস্থিত অ্যান্টিবডিগুলিকে বোকা বানিয়ে সংক্রমণ ঘটাতে সক্ষম।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *