৬১ বছর ধরে ইউরো কাপে প্রথম ম্যাচে না হারার রেকর্ড অক্ষত রাখল ফ্রান্স

Mysepik Webdesk: মিউনিখে শেষ ৬ ম্যাচে অপরাজিত থাকল ফ্রান্স। ইউরো কাপের গ্রুপ এফের দ্বিতীয় ম্যাচে ফ্রান্স ১-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে জার্মানিকে। ফ্রান্স জিতলেও ম্যাচের একমাত্র গোলটি করেছিলেন জার্মানি দলের ম্যাট হামেলস। তাঁর আত্মঘাতী গোলের জন্যই জয় পেয়েছে ফ্রান্স। বাঁ-প্রান্তে লুকাস হার্নান্দেজকে বল বাড়িয়েছিলেন পোগবা। এরপর চকিতে সেন্টার করেন এমবাপ্পেকে লক্ষ্য করে। তবে বায়ার্ন মিউনিখের এই ডিফেন্ডারের অ্যাসিস্টটিকে বিপদমুক্ত করতে গিয়ে বল নিজের গোলেই ঢুকিয়ে দেন ম্যাট হামেলস। ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। গোটা ম্যাচে এরপর উভয় দলই সুযোগ পেলেও কোনও পক্ষ কোনও গোল করতে পারেনি।

আরও পড়ুন: আফগানিস্তানের সঙ্গে ড্র­: এশিয়ান কাপ কোয়ালিফায়ার্সের ৩য় রাউন্ডের টিকিট নিশ্চিত করল ভারত

ম্যাচটি মিউনিখের ফুটবল অ্যারিনা স্টেডিয়ামে খেলা হয়েছিল। এই জয়ের পর মিউনিখে জার্মানির বিপক্ষে সর্বশেষ ৬ ম্যাচে অপরাজিত রইল দিদিয়ের দেশঁর দল। ফরাসি দল এর মধ্যে ৪টি জিতেছে এবং দু’টি ম্যাচ ড্র হয়েছিল। অন্যদিকে, এটি সর্বশেষ ৬ ম্যাচে জার্মানির দ্বিতীয় পরাজয়। এর মধ্যে তারা ৩টি ম্যাচ জিতেছে এবং একটিতে ড্র হয়েছে। অন্যদিকে, ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নরা তাদের সর্বশেষ ৬ ম্যাচে অপরাজিত। এরমধ্যে তারা ৪টিতে জিতেছে এবং ২টি ম্যাচে ড্র করেছে।

আরও পড়ুন: অলিম্পিকে সোনা জয়ের লক্ষে প্রতিদিন ৬ ঘণ্টা করে অনুশীলন কুস্তিগীর রবি দাহিয়ার

২০১৬ সালের ইউরো কাপের সেমিফাইনালেও দু’টি দল একে অপরের মুখোমুখি হয়েছিল। সেই ম্যাচে ফ্রান্স জার্মানিকে ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে। ওই ম্যাচে ফ্রান্সের অঁতোয়ান গ্রিজম্যান দু’টি গোল করেছিলেন। তাই জার্মান দলের কাছে এই ম্যাচটি কার্যত প্রতিশোধ নেওয়ার ম্যাচ। কিন্তু ওই একটিমাত্র ভুলের কারণে সেই মধুর প্রতিশোধ আর নেওয়া হল না জোয়াকিম লো-র ছেলেদের। বলাই যায় যে, দিদিয়ের দেশঁর দল গতি এবং রক্ষণের সংমিশ্রণে অসাধারণ এক ফুটবল উপহার দিয়ে বাজিমাত করল। একইসঙ্গে ফ্রান্স গত ৬১ বছর ধরে ইউরো কাপে প্রথম ম্যাচে না হারার রেকর্ড অক্ষত রাখল। শেষবারের মতো তারা ১৯৬০ সালে যুগোস্লাভিয়ার বিপক্ষে ৫-৪ গোলে হেরেছিল। ১৯৬০ সাল থেকে ৯টি প্রথম ম্যাচ খেলেছে ফ্রান্স। এর মধ্যে তারা জিতেছে ৬টি এবং ৩টি ম্যাচ ড্র হয়েছে। অন্যদিকে, জার্মানি এই প্রথমবার নিজেদের প্রথম ম্যাচে হার স্বীকার করল।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *