২১ জুন থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সবাইকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন: নরেন্দ্র মোদি

Mysepik Webdesk: সোমবার বিকেল ৫টা নাগাদ জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ রাখলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এদিন তিনি তাঁর ভাষণে শিশুদের ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে জানান, শিশুদের জন্য দুটি ডোজের ভ্যাকসিন ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চলছে। শিশুদের ক্ষেত্রে ন্যাসাল ভ্যাকসিন দেওয়ার চিন্তাভাবনা চলছে। ইতিমধ্যেই শিশুদের জন্য দুটি ডোজের ভ্যাকসিন ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হয়েছে। এছাড়াও টিকাকরণের জন্য কেন্দ্র বিভিন্ন রাজ্যের সঙ্গে বৈঠক করেছে। যাঁদের আগে ভ্যাকসিন দেওয়া প্রয়োজন, তাঁদের আগে ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেইজন্যই দেশের স্বাস্থ্যকর্মীদের আগে টিকাকরণ হয়েছে।

আরও পড়ুন: জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে কী কী জানালেন প্রধানমন্ত্রী

এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, “কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যগুলিকে কোভিড গাইডলাইন তৈরি করে দেয়। স্থানীয় স্তরে লকডাউনের জন্যও গাইডলাইন দেওয়া হয়। সবার জন্য টিকাকরণেরও ব্যবস্থা করছিলো কেন্দ্রীয় সরকার। তার মধ্যেই কিছু রাজ্য জানায়, ভ্যাকসিনের দামে বিকেন্দ্রিকরণ করা হোক। আবার কিছু কিছু রাজ্য জানায়, আগে বয়স্কদের ভ্যাকসিন দেওয়া হোক। আবার অনেক ক্ষেত্রে এরকমও প্রশ্ন আসে, কেন আগে বয়স্কদের ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে ? এক্ষেত্রে রাজ্যের নীতির অপর ভিত্তি করে দেখে নীতিতে বদল আনে কেন্দ্র। ১ মে থেকে রাজ্যগুলির অধীনে ২৫ শতাংশ কাজ হস্তান্তর করা হয়। বাস্তব কত কঠিন তখন রাজ্যগুলি জানতে পারে। টিকাকরণের কাজ রাজ্যকে দেওয়া হোক, প্রথমে এই আবেদন আসে।”

আরও পড়ুন: মাত্র ৫০০ টাকায় দু’টি ডোজ, বাজারে আসছে নতুন ভ্যাকসিন CORBEVAX

এদিন প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে জানান, আগামী ২১ জুন অর্থাৎ সোমবার থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সবাইকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। কেন্দ্র নিজে ওই ভ্যাকসিন কিনে রাজ্যগুলিকে দেবে। পাশাপাশি দেশের সমস্ত দরিদ্র, মধ্যবিত্ত, উচ্চবিত্ত সবাইকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, “যে ব্যক্তি ফ্রি ভ্যাকসিন নিতে চান না, তাঁদের জন্য আলাদা ভাবনা চিন্তা করা হচ্ছে। উৎপাদিত এবং আমদানিকৃত ভ্যাকসিনের ২৫ শতাংশ যাতে বেসরকারি হাসপাতালগুলি পেতে পারে, সেই ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। এক একটি ডোজের জন্য সর্বোচ্চ ১৫০ টাকা সার্ভিস চার্জ নিতে পারবে বেসরকারি হাসপাতালগুলি।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *