টোকিওতে সোনালি সকাল ভারতের

সম্রাট মিশ্র

আজ সকালটা দারুণভাবে শুরু হল ভারতের। টোকিও প্যারালিম্পিক্সে প্রথম সোনা এলো আজ সকালে। শ্যুটার অবনী লেখারা প্রথম মহিলা হিসেবে প্যারালিম্পিক্সে সোনা জিতলেন। মহিলাদের ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে স্ট্যান্ডিং এস এইচ-১ বিভাগের ফাইনালে শীর্ষে থেকে সোনা জিতলেন অবনী। তিনি ওই ইভেন্টে ২৪৯.৬ স্কোর করে প্যারালিম্পিক্স রেকর্ড করেন। এদিনের দ্বিতীয় মেডেলটা এলো যোগেশ কাঠুনিয়ার থেকে। পুরুষদের ডিসকাস থ্রোয়ের এফ-৫৬ বিভাগে রুপো জিতলেন তিনি। ষষ্ঠবারের প্রচেষ্টায় ৪৪.৩৮ মিটার ডিসকাস ছুড়ে রুপো নিশ্চিত করেন।

আরও পড়ুন: কলকাতায় প্রায় বিস্মৃত একটি খেলা এবং কিছু অস্বস্তিকর প্রশ্ন

ভারতের কিংবদন্তি জ্যাভলার দেবেন্দ্র ঝাঝারিয়া প্যারালিম্পিক্সে তৃতীয়বার পদক জয় করে ইতিহাস রচনা করেন। ২০০৪ এথেন্স এবং ২০১৬ রিও-তে সোনার পর টোকিওতে তাঁকে রুপো জিতেই সন্তুষ্ট থাকতে হল। পুরুষদের জ্যাভলিনে এফ-৪৬ বিভাগের ফাইনালে ৬৪.৩৫ মিটার বর্শা ছুড়ে রুপো জয় করেন। একই বিভাগে ৬৪.০১ মিটার ছুড়ে ব্রোঞ্জ জিতলেন সুন্দর সিং গুরজার। একই বিভাগে আট নম্বরে শেষ করেন অজিত সিংহ।

আরও পড়ুন: জাতীয় ক্রীড়া দিবসে প্যারালিম্পিক্সে ভারতের দু’টি রুপো জয়, তৃতীয় পদক নিয়ে বিতর্ক

একটা সোনা, দু’টি রুপো এবং একটি ব্রোঞ্জ মিলিয়ে চারটি পদক জিতে টোকিও প্যারালিম্পিক্সের ষষ্ঠ দিনের সকালটা দারুণভাবে শুরু হল ভারতের। পদক জয়ী ভারতীয় অ্যাথলেটদের শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং রাষ্ট্রপতি ড. রামনাথ কোবিন্দ। এখনও পর্যন্ত সাতটি পদক জিতে ভারত পদক তালিকায় ৩৪তম স্থানে অবস্থান করছে। 

১৯৬৮ সালের তেল আবিব প্যারালিম্পিকে প্রথমবার অংশগ্রহণ করেন ভারতীয় প্যারা অ্যাথলেটরা। যদিও সেবার অংশগ্রহণকারী ১০ জন অ্যাথলেটদের মধ্যে কেউই পদক জিততে পারেননি। প্যারালিম্পিক্সে ভারতের প্রথম পদক আসে ১৯৭২-এর হেইডেলবার্গ গেমসে। পুরুষদের ৫০ মিটার ফ্রি-স্টাইল সাঁতারে সোনা জিতেছিলেন মুরলীকান্ত পাটেকার। যিনি ছিলেন ১৯৬৫ সালের ভারত-পাক যুদ্ধে ভারতীয় সেনাবাহিনীর জওয়ান, যুদ্ধক্ষেত্রে শত্রুপক্ষের বুলেট তাঁকে প্রতিবন্ধী করে দেয়। প্রতিবন্ধকতাকে অতিক্রম করে তিনি দেশের হয়ে প্রথম পদক লাভ করেন।
১৯৮৪-র স্টোক ম্যান্ডেভিল এবং নিউ ইয়র্ক গেমসে দু’টি রুপো এবং দু’টি ব্রোঞ্জসহ মোট ৪টি পদক পায় ভারত। সেবার অ্যাথলেটিক্সে যোগীন্দর সিংহ একটি রুপো ও দু’টি ব্রোঞ্জ-সহ একাই তিনটি পদক লাভ করেন, যা ভারতীয় প্যারালিম্পিক্সের ইতিহাসে অসাধারণ সাফল্য।

১৯৭২ প্যারালিম্পিক্সে ভারতের প্রথম পদকজয়ী মুরলীকান্ত পাটেকার

১৯৮৮ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত প্যারালিম্পিক্সে ভারতের কোনও পদক আসেনি। ২০০৪ সালে এথেন্সে দেবেন্দ্র ঝাঝারিয়া জ্যাভলিন থ্রো-তে সোনা এবং রাজেন্দর সিং রহেলু পাওয়ার লিফটিং-এ ব্রোঞ্জ জিতে দীর্ঘ পদকের খরা কাটান। ২০১২ সালে লন্ডনে গিরিশ নগরাজেগৌড়া পুরুষদের হাই জাম্পে এফ-৪২ বিভাগে রূপো জিতেছিলেন। ২০১২-এর পর থেকে ভারত নিয়মিত পদক জয় করে।
২০১৬ সালে রিও-তে মোট ৪টি পদক জিতে পদক তালিকায় ৪৩ নম্বরে শেষ করেছিল ভারত। রিও-তে প্রথম মহিলা অ্যাথলেট হিসেবে প্যারাঅলিম্পিক্সে পদক জিতেছিলেন দীপা মালিক, শটপুটে এফ-৫৩ বিভাগে রুপো জিতে ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন তিনি। দেবেন্দ্র ঝাঝারিয়া এবং মারিয়াপ্পন থঙ্গভেলু জিতেছিলেন স্বর্ণ পদক, বরুণ সিং ভাটি জিতেছিলেন ব্রোঞ্জ।

টোকিওতে এখনও পর্যন্ত একটি সোনা, চারটি রুপো ও একটি ব্রোঞ্জ-সহ মোট ছয়টি পদক জিতে ভারত পদক তালিকায় ৩৪তম স্থানে অবস্থান করছে। যা প্যারালিম্পিক্সে ভারতের সেরা পারফরম্যান্স। প্যারালিম্পিক্সে এখনও অনেকগুলো ইভেন্ট বাকি, তাই ভারতের পদকের সংখ্যা আরও বাড়বে আশা করাই যায়।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *