পিন দিয়ে কন্ডোম ফুটো করে যৌনতার অতিরিক্ত আনন্দ নিতে গিয়ে ধর্ষণের দায়ে জেলে

Mysepik Webdesk: আমেরিকার ৪৭ বছরের অ্যান্ড্রু লুইসের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি অতিরিক্ত যৌনতার আনন্দ নিতে গিয়ে কন্ডোম পিন দিয়ে ফুটো করে দিয়েছিলেন। তারপরেই যৌনতায় লিপ্ত হয়েছিলেন এক মহিলার সঙ্গে। সেই খবর জানতে পেরে ওই মহিলা অ্যান্ড্রুর বিরুদ্ধে সরাসরি ধর্ষণের অভিযোগ আনেন। আমেরিকার ম্যাসাচুসেটস প্রদেশের স্থানীয় আদালতে পরবর্তীকালে সেই ঘটনা প্রমাণিত হওয়ায় ওই ব্যক্তিকে চার বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। ২০১৮ সালের ১০ মার্চের ঘটনার এতদিন পর আদালত ওই ব্যক্তিকে সাজা শুনিয়েছে।

আরও পড়ুন: চিনকে পছন্দ করছে না বিশ্বের বহু মানুষ, ১৪ টি দেশজুড়ে সমীক্ষায় এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

ওই মহিলা জানিয়েছেন, প্রথমে তিনি বুঝতে পারেননি কন্ডোমে ফুটো করার ঘটনাটি ইচ্ছাকৃতভাবে ঘটানো হয়েছে। তবে ব্যবহৃত কন্ডোমটি যেখানে পড়ে ছিল, সেখানে তিনি একটি পিনও দেখতে পান। পরে অ্যান্ড্রুর ড্রয়ার থেকে তিনি এরকমই আরও কয়েকটি ফুটো করা কন্ডোম উদ্ধার করেন। তারপরেই তিনি বিষয়টি নিয়ে নিশ্চিত হয়ে যান যে এটা ইচ্ছাকৃতভাবে করা হয়েছে। বিচার চলাকালীন আদালতের কাছে অ্যান্ড্রু জানিয়েছে, তিনি নিছক আনন্দ উপভোগ করার লক্ষ্যেই এই কাজ করেছেন, যদিও আদালত তার যুক্তি মানতে রাজি হয়নি। অন্যদিকে মহিলার আইনজীবী জানান, এটা ইচ্ছাকৃতভাবেই করেছেন অ্যান্ড্রু। এই ধরণের ঘটনায় অপরাধীর শাস্তি হওয়া দরকার।

আরও পড়ুন: পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে যৌথভাবে নোবেল পেলেন তিনজন, গবেষণা করেছেন ‘ব্ল্যাক হোল’ নিয়ে

এই বিচারের রায় জানাতে গিয়ে আদালত জানিয়েছে, ওই মহিলা যৌনতার সময় চাননি যে তিনি গর্ভবতী হয়ে যান। সেই কারণেই তিনি কন্ডোম ব্যবহার করার কথা বলেছিলেন। কিন্তু অন্যদিকে অ্যান্ড্রু সেকথা যেন সত্ত্বেও কন্ডোমে ফুটো করে যৌনতায় লিপ্ত হয়েছেন। এই ধরণের ঘটনা অন্যায়। অপরাধীর উচিত সাজা হওয়া উচিত। পাশাপাশি বিচারক জানিয়েছেন, এই ধরণের ঘটনা খুবই বিরল, তাই এক্ষেত্রে সবদিক বিচার করেই অপরাধীকে চার বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হচ্ছে।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *