ঝড়ের সময় কি করণীয় আর কি এড়িয়ে চলবেন, আপনার জন্য রইল টিপস

Mysepik Webdesk: যত সময় যাচ্ছে, অন্ধ্র উপকূলের স্থলভাগের দিকে এগোচ্ছে ‘গুলাব’। আজ, রবিবার বিকালেই কলিঙ্গপত্তনামে ল্যান্ডফল। সেই সময় ঘূর্ণিঝড়ের গতিবেগ থাকবে ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার। এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব দেখা যাবে এই রাজ্যেও। এদিকে ঘূর্ণিঝড়ের পরই থাকছে নিম্নচাপের ফাঁড়া। হাওয়া অফিস বলছে, রবিবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় ভারী বৃষ্টির সঙ্গে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টির সর্তকতা দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলাতেও। ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’ ও জোড়া নিম্নচাপের জেরে রেড অ্যালার্ট জারি হয়েছে কলকাতা-সহ দক্ষিনবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায়। দিঘা ও মন্দারমণি পর্যটকশূন্য করতে সমস্ত হোটেলকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: স্থলভাগের দিকে এগোচ্ছে ‘গুলাব’, নবান্ন থেকে জারি হল বাড়তি সতর্কতা

ঘূর্ণিঝড়ের হাত থেকে বাঁচতে আপনাকে অবশ্যই বেশ কিছু সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। আসুন জেনে নেওয়া যাক সেগুলি কি কি।

১) জরুরি নথিপত্র এবং প্রয়োজনীয় সামগ্রী জল থেকে বাঁচানোর জন্য অবশ্যই নিরাপদ স্থানে সরিয়ে ফেলুন।
২) আপৎকালীন প্রয়োজনের জন্য অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রী যেমন খাদ্য, জল, ওষুধ ও অন্যান্য সামগ্রী পর্যাপ্ত পরিমানে মজুত করে রাখুন।
৩) ঝড়ের সময় বিদ্যুত সরবরাহ বন্ধ হয়ে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে মোবাইল ফোন ও পাওয়ার ব্যাংকগুলিকে চার্জ দিয়ে রাখুন।
৪) সংবাদপত্র, টিভি, রেডিওতে আবহাওয়া সংক্রান্ত খবরের দিকে নজর রাখুন। অযথা আতংকিত হবেন না।

আরও পড়ুন: স্থলভাগের আরও কাছে ‘গুলাব’ ওড়িশা-অন্ধ্রপ্রদেশে চলছে যুদ্ধকালীন তৎপরতা

৪) বাড়িতে গৃহপালিত প্রাণী থাকলে তাদের বাঁধন খুলে রাখুন।
৫) বৈদ্যুতিন লাইন এবং গ্যাস সরবরাহের মেইন সুইচ বন্ধ রাখুন।
৬) দরজা-জানালা বন্ধ রাখুন। অযথা ঘর থেকে বেরবেন না।
৭) কাঁচা বাড়ি কিংবা কোনও ক্ষতিগ্রস্থ বাড়ির ভেতরে থাকবেন না, নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিন। প্রয়োজনে ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়স্থলে আশ্রয় নিন।
৮) ভেঙে পড়া বৈদ্যুতিন ঘুটি কিংবা বৈদ্যুতিন তারে হাত দেবেন না।
৯) রাজ্য সরকারের বিপর্যয় বাহিনী ও অসামরিক প্রতিরক্ষা বিভাগ থেকে দেওয়া নির্দেশ পালন করুন।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *