Latest News

Popular Posts

প্রধানমন্ত্রীর কনভয়-কাণ্ডে পঞ্জাব ডিজিপিকে কড়া নোটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের

প্রধানমন্ত্রীর কনভয়-কাণ্ডে পঞ্জাব ডিজিপিকে কড়া নোটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের

Mysepik Webdesk: বুধবার পঞ্জাবের ভাতিন্ডা বিমানবন্দর থেকে ফিরোজপুর যাওয়ার পথে কৃষকদের বিক্ষোভের মুখে পড়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। বিক্ষোভের জেরে প্রায় কুড়ি মিনিট একটি ফ্লাইওভারে আটকে থাকতে হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীকে। এবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক পঞ্জাবের ফিরোজপুরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নিরাপত্তা লঙ্ঘনের বিষয়ে ডিজিপি সিদ্ধার্থ চট্টোপাধ্যায়কে একটি নোটিশ দিয়েছে। ডিজিপি সিদ্ধার্থ চট্টোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসা করা হয়েছে, কেন তাঁর বিরুদ্ধে সর্বভারতীয় পরিষেবা বিধি অনুসারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না? একইসঙ্গে বলা হয়েছে, তিনি স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ (এসপিজি) আইনের অধীনে তাঁর আইনি দায়িত্ব পালন করেননি।

তাঁকে জবাব দেওয়ার জন্য বিকেল ৫টা পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে। অন্যথায় তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। ডিজিপির পাশাপাশি ফিরোজপুরের এসএসপি হরমনদীপ হান্স এবং ভাতিন্ডার এসএসপি অজয় ​​মালুজাও নোটিশ পেয়েছেন। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পর হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকে সাহায্য করার জন্য জাতীয় তদন্ত সংস্থা (এনআইএ)-র আইজি সন্তোষ রাস্তোগিকে নিয়োগ করা হয়েছে, যিনি প্রধানমন্ত্রীর সফর সংক্রান্ত সমস্ত নথিপত্র গ্রহণ করবেন।

আরও পড়ুন: ফিরোজপুরের সতলুজ নদী থেকে উদ্ধার হল পাকিস্তানি নৌকা

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের ডেপুটি সেক্রেটারি অর্চনা ভর্মা এই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ভিভিআইপিরা বিক্ষোভস্থানের ১০০ মিটার আগে ১৫-২০ মিনিটের জন্য ফ্লাইওভারে আটকে ছিলেন। এটি একটি অত্যন্ত গুরুতর গলদ। এর ফলে মনে হচ্ছে, আগাম নিরাপত্তা বিষয়ে সমস্যার সমাধান না করেই ১ এবং ২ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীকে রুট ক্লিয়ারেন্স দেওয়া হয়েছিল।

ব্লু বুক ও নির্ধারিত পদ্ধতি অনুযায়ী, তাঁর ডিজিপি হিসেবে ভিভিআইপির জন্য সমস্তরকম ব্যবস্থা করা উচিত ছিল। কন্টিজেন্সি প্ল্যানে সড়কে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা উচিত ছিল। মনে হয়, এ ধরনের কোনও পরিকল্পনা করা হয়নি বা তা কার্যকর হয়নি। এ ছাড়া এখন পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, বিক্ষোভস্থলে অবস্থানরত পুলিশ কার্যকর ছিল না। এমনকী সেখানে নিযুক্ত ঊর্ধ্বতন পুলিশকর্তারাও প্রধানমন্ত্রীর কনভয়কে সরিয়ে নেওয়ার কোনও ব্যবস্থা করেননি।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *