করোনার বিরুদ্ধে লড়তে কোভ্যাকসিন কতটা কার্যকরী, জানাল আইসিএমআর

Mysepik Webdesk: করোনার বিরুদ্ধে লড়তে বর্তমানে দেশজুড়ে চলছে টিকাকরণ। বর্তমানে ভারতে মূলত তিনটি ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ চলছে পুরোদমে। সেগুলি হল যথাক্রমে কোভ্যাকসিন, কোভিশিল্ড এবং স্পুটনিক ভি। সেক্ষেত্রে ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাকসিন ভ্যাকসিনটি করোনার বিরুদ্ধে লড়তে ঠিক কতটা কার্যকরী, সে সম্পর্কে সম্প্রতি একটি সমীক্ষা চালিয়েছিল আইসিএমআর। সেই সমীক্ষায় উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

আরও পড়ুন: জো বাইডেনের সঙ্গে সেপ্টেম্বরেই সম্ভবত বৈঠকে বসতে পারেন নরেন্দ্র মোদি

আইসিএমআর জানিয়েছে, কোভ্যাকসিনের একটি ডোজ নেওয়া হয়ে গেলে সেই ব্যক্তি করোনা ভাইরাসের হাত থেকে ঠিক কতখানি সুরক্ষিত থাকবেন, তা নির্ভর করছে ওই ব্যক্তি আগে কখনও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন কিনা। অর্থাৎ কোনও ব্যক্তি যদি পূর্বে করোনা আক্রান্ত হয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে আগে থেকে তাঁর শরীরে প্রাকৃতিকভাবেই অ্যান্টিবডি তৈরি হয়ে যায়। এরপর ওই ব্যক্তি যদি পরবর্তীকালে কোভ্যাকসিনের একটি ডোজ নিয়ে থাকেন, তাহলে তিনি অনেকটাই সুরক্ষিত থাকবেন। অর্থাৎ পূর্বে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, এমন কোনও ব্যক্তি কোভ্যাকসিনের একটি ডোজ নিলেই তা দু’টি ডোজ নেওয়ার সমান।

আরও পড়ুন: তৃতীয় ঢেউয়ের আতঙ্ক বাড়িয়ে দেশে একদিনেই মৃত্যু ৩০৮ জনের, আক্রান্তের হার ঊর্ধ্বমুখী

সম্প্রতি আইসিএমআর এই বিষয়ে একটি গবেষণার জন্য ১১৪ জন স্বাস্থ্যকর্মীর ওপর সমীক্ষা চালিয়েছে। সেখানে দেখা গিয়েছে কোনও ব্যক্তি কোভিশিল্ড কিংবা কোভ্যাকসিনের যেকোনও একটির দু’টি ডোজ নিয়ে থাকলে ওই ব্যক্তি অন্তত ৯০ শতাংশ সুরক্ষিত থাকবেন। তবে আইসিএমআর আরও জানাচ্ছে যে, ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ নেওয়ার পরেও প্রত্যেকের ক্ষেত্রেই সাধারণ করোনাবিধি মেনে চলা বাধ্যতামূলক।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *