মুম্বইয়ের মেরিন ড্রাইভে মাস্ক বিরোধী আন্দোলনে সামিল শয়ে শয়ে মানুষ

merine drive

Mysepik Webdesk: এখনও দেশজুড়ে করোনা আতঙ্ক কাটেনি। রোজই গড়ে প্রায় ৭০ থেকে ৮০ হাজার মানুষের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। এদিকে বিশেষজ্ঞরা করোনার হাত থেকে বাঁচতে বার বার মানুষকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পাশাপাশি বাড়ির বাইরে বেরলে মাস্ক পড়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। সেই কারণে দেশজুড়ে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কিন্তু সম্পূর্ণ উল্টো ছবি শুক্রবার দেখা গেল মুম্বইয়ের মেরিন ড্রাইভে। সেখানে শয়ে শয়ে মানুষকে দেখা গেল বিক্ষোভ আন্দোলনে সামিল হতে। তাদের দাবি, মাস্ক পরাকে আর বাধ্যতামূলক করা যাবে না।

আরও পড়ুন: আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে দেশে প্রথম সম্মেলন, ভার্চুয়াল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী, অংশগ্রহণ করবেন মুকেশ আম্বানি

শুক্রবার মুম্বইয়ের মেরিন ড্রাইভে ‘জাগ্রত ভারত’ নামে একটি সংগঠনের পক্ষ থেকে একটি বিক্ষোভ আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয়। আন্দোলনকারীদের দাবি ছিল, দেশে মাস্ক-ও-ভ্যাকসিন নীতির বাধ্যবাধকতা উঠিয়ে নিতে হবে। এছাড়াও লকডাউন, চিকিৎসায় পছন্দের অধিকার ও জোর করে করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা যাবে না, এমনটাই দাবি ছিল বিক্ষোভকারীদের।

আরও পড়ুন: TET পরীক্ষা ছাড়াই ৮০০০ শিক্ষক নিয়োগ করা হবে আর্মি স্কুলে, আজই আবেদন করুন

যদিও ঐদিন সকাল ১১ টায় মন্ত্রালয়ের বিপরীতে মহাত্মা গান্ধী মূর্তির পাদদেশে এই বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু হয়েছিল, পরে পুলিশ তাদের ব্যানার ছিনিয়ে নিয়ে জনতাকে ছত্রভঙ্গ করে দিলে তারা মেরিন ড্রাইভে এই বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে। এক বিক্ষোভকারীর কথায়, “যদি কারোনাভাইরাস ৬ ফুট দূরত্বেও সংক্রমণ ঘটাতে পারে, তাহলে মাস্ক কেন? দুটিই যদি কাজ করে তবে লকডাউন কেন? আর তিনটিই যদি কাজ করে তবে ভ্যাকসিন কেন? যদি ভ্যাকসিনটি নিরাপদ থাকে তবে ‘দায় নেই’ ধারা কেন? বিক্ষোভকারীদের মধ্যে অন্য আরেকজন জানিয়েছেন, “অনেকেই বিশেষ করে যাদের শ্বাসকষ্টের সমস্যা রয়েছে, তাদের মাস্ক পড়তে সমস্যা হয়। আমরা মাস্ক পরার বিরোধী নই। তবে তা জোর করে চাপিয়ে দেওয়া যাবে না।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *