এক রাজ্য থেকে ডোপিংয়ে ৩ অ্যাথলেট ধরা পড়লে এবার থেকে বিধিনিষেধের মুখোমুখি হবে রাজ্যের সংস্থাগুলিও

Mysepik Webdesk: কোনও রাজ্যের তিনজনের বেশি অ্যাথলেট যদি ডোপিংয়ে ধরা পড়েন, তবে ভারতের অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে। এই পরিপ্রেক্ষিতে অ্যাসোসিয়েশন অফ স্টেটস তাদের জেলা ইউনিটগুলিকে নিষিদ্ধ ওষুধের ক্ষেত্রে কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ ও নিরীক্ষণ করতে বলেছে। অন্যদিকে, জাতীয় অ্যান্টি ডোপিং অ্যাসোসিয়েশনের (এনএডিএ) সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী, সারাদেশে ডোপিংয়ের ক্ষেত্রে ৩৭ জন খেলোয়াড়কে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এই মামলাগুলি জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

আরও পড়ুন: বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের নতুন সভাপতি পদে স্বপন (বাবুন) বন্দ্যোপাধ্যায়

ডোপিংয়ের ক্ষেত্রে সম্প্রতি বেশ কয়েকজন প্রখ্যাত ভারতীয় অ্যাথলেট ধরা পড়েছেন। এর মধ্যে এশিয়ান পদকপ্রাপ্ত এবং আন্তর্জাতিক স্তরের অ্যাথলেট রয়েছেন। অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া ডোপিং বন্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে চলেছে। ফেডারেশন বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছিল। ক্রীড়াবিদ ছাড়াও স্টেট ইউনিটগুলির ওপরেও কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ডোপিংয়ে জড়িয়ে পড়লে এতকাল অ্যাথলিটরা বিধিনিষেধের মুখোমুখি হতেন, তবে এখন থেকে রাজ্যের সংস্থাগুলিকেও পড়তে হতে পারে কঠিন শাস্তির মুখে। এতে, সেই রাজ্যের স্বীকৃতি কিছু সময়ের জন্য বাতিল করা হতে পারে।

আরও পড়ুন: আইএফএ শিল্ডে রনি রায় নামাঙ্কিত ট্রফি

উত্তরপ্রদেশ অ্যাথলেটিক্স অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি পি কে শ্রীবাস্তব বলেন যে, “এএফআই পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। এটি সত্য যে, ডোপিংয়ের মামলা রোধে জেলাস্তর থেকে কঠোরতা থাকা উচিত। তবে এটি গ্রাউন্ড লেভেল সম্ভব নয়। ইতিমধ্যেই রাজ্য সমিতি সকল জেলা ইউনিটকে ডোপিংয়ের বিষয়ে কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *