চিনে করোনার উৎপত্তি নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হু-এর তদন্তকারী দলের হাতে

Mysepik Webdesk: দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর অবশেষে গত মাসের শেষের দিকে করোনাভাইরাসের উৎস সন্ধানে চিনের ইউহান শহরে প্রবেশ করার অনুমতি পেয়েছেন হু-এর বারো-চোদ্দ জন বিশেষজ্ঞের দল। তাদের দাবি, করোনাভাইরাসের উৎস সন্ধানে গিয়ে তাদের হাতে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উঠে এসেছে। তবে সরাসরি তাঁরা কিছু না জানালেও ইউহানের মাছ-মাংসের বাজার সম্পর্কে নতুন বেশ কিছু তথ্য তাঁরা সংগ্রহ করেছেন বলে জানা গিয়েছে, যেগুলিকে তাঁরা ‘বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ’ বলেও দাবি করেছেন। তবে চিনের ল্যাবরেটরিতে কৃত্রিম উপায়ে ভাইরাস তৈরির সম্ভাবনাকে অবশ্য পত্রপাঠ নাকচ করে দিয়েছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন: আজ শুরু ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসনের বিচার

Image result for origin of coronavirus who representatives

বিশেষজ্ঞদের দলের অন্যতম সদস্য নিউ ইয়র্কের প্রাণীবিদ পিটার ডাসজাক আশাপ্রকাশ করেছেন বুধবারের মধ্যেই এব্যাপারে কোনও ঘোষণা করতে পারে হু। তার কথায়, “গত কয়েক মাস ধরেই এই নিয়ে কাজ করে চলেছি আমরা। আমাদের দলের সঙ্গেও নিয়মিত আলোচনায় বসতেও রাজি ছিল বেজিং। প্রতিদিনই আমরা ওঁদের সঙ্গে বসেছি। নানা তথ্য, নতুন ডেটা আদান প্রদান করা হয়েছে। আমরা ওদের জানিয়েছিলাম, আমরা কোন জায়গাগুলো পরিদর্শন করতে চাই। আমাদের অনুরোধ মেনে নিয়ে সমস্ত জায়গাতেই যেতে দেওয়া হয়েছে আমাদের।”

আরও পড়ুন: পাকিস্তানে ধ্বংসের মুখে বহু হিন্দু ধর্মস্থান, চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট

Image result for origin of coronavirus who representatives

টো১৯ সালের ডিসেম্বর মাস থেকেই চিনের ইউহান শহর থেকে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। ধীরে ধীরে বিশ্বজুড়ে তা অতিমারীর আকার ধারণ করেছে। প্রাণ নিয়েছে বহু মানুষের। অসুস্থ হয়েছেন আরও কয়েকগুন বেশি মানুষ। প্রাক্তন মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প-সহ অনেকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছিলেন বেজিংয়ের দিকে। অনেকেই আবার দাবি করে বসেন, ইউহানের ল্যাবরেটরিতে কৃত্রিম উপায়ে তৈরি করা হয়েছিল এই প্রাণঘাতী ভাইরাস। তবে যাবতীয় দাবি উড়িয়ে দিলেও তাঁরা করোনাভাইরাসের উৎস সম্পর্কে বিশেষ তথ্য পেয়েছেন বলেই দাবি করলেন।

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *