রাষ্ট্রসঙ্ঘে কাশ্মীর নিয়ে মন্তব্য ইমরান খানের, তৎক্ষণাৎ ওয়াক-আউট ভারতের

Mysepik Webdesk: রাষ্ট্রসঙ্ঘের সভা চলাকালীন বক্তব্য রাখতে গিয়ে হটাৎ করে কাশ্মীর প্রসঙ্গ তুলে আনলেন পাক-প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ভারতকে নিশানা করে তিনি বলতে শুরু করেন, ‘বিভিন্ন দেশে ‘ইসলামোফোবিয়া’ বাড়ছে। মুসলমানদের খুন করা হচ্ছে, মসজিদ ভাঙা হচ্ছে। কোভিড ১৯ অতিমারির আবহে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানো চলছে। ভারত তাদের অভ্যন্তরীণ সমস্যা থেকে নজর ঘোরাতেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সেনাকে ব্যবহার করছে’। তাঁর এই বক্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়ে রাষ্ট্রসঙ্ঘের ৭৫তম সাধারণ সভা থেকে ওয়াক আউট করল ভারত। পাক-প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যকে নীচু মানের কূটনীতি বলে ব্যাখ্যা করেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টিএস তিরুমূর্তি।

আরও পড়ুন: স্কুলের মহিলা শৌচালয়ে গোপন ক্যামেরা, বেতন না দিয়ে ৫২ শিক্ষিকার ভিডিও তুলে ব্ল্যাকমেলের অভিযোগ

টুইটারে তিরুমূর্তি লেখেন, “পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর এই ধরণের বিবৃতি আসলে অত্যন্ত নীচু মানের কূটনীতি। পাকিস্তানে বসবাসকারী সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার ও সীমান্ত সন্ত্রাস থেকে বিশ্বকে বিভ্রান্ত করতে বিরক্তিকর, বিদ্বেষপূর্ণ মিথ্যে, ব্যক্তিগত আক্রমণ, যুদ্ধে উস্কানিমূলক বিবৃতি। কড়া জবাব আসছে।” পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, “পাকিস্তানের এই ধরনের কাজ আসলে আয়োজক দেশের অ্যাডভাইসরিকে অমান্য করার সামিল এবং বৈঠকের নিয়ম লঙ্ঘন করাও বটে। আয়োজকের সঙ্গে আলোচনার পরেই ভারতের প্রতিনিধিরা প্রতিবাদ জানিয়ে মিটিং ছেড়ে বেরিয়ে যান। আশানুরূপ পাকিস্তান ওই বৈঠকে একটি বিভ্রান্তিকর মত পোষণ করতে চেয়েছিল।”

আরও পড়ুন: ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরছে সিলিং ফ্যান, যুগান্তকারী আবিষ্কার ভারতীয়র

শুক্রবার রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সভার ভিডিও বিবৃতিতে কাশ্মীর-সহ ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে বক্তব্য রাখেন পাক-প্রধানমন্ত্রী ইমরান। পাক প্রধানমন্ত্রী ওই ধরণের বক্তব্য শুরু করতেই মিজিতো ভিনিতো ওয়াক আউট করেন। এরপর ভারতের পক্ষ থেকে পাকিস্তানকে সাফ জানানো হয়, জম্মু-কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। এটি ভারতের সম্পূর্ণ অভ্যন্তরীণ বিষয়।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *