Latest News

Popular Posts

চিনে খোঁজ মিললো অতিমারীর ক্ষমতাসম্পন্ন ১৮ রকমের ভয়ঙ্কর ভাইরাস! আতঙ্কে গোটা বিশ্ব

চিনে খোঁজ মিললো অতিমারীর ক্ষমতাসম্পন্ন ১৮ রকমের ভয়ঙ্কর ভাইরাস! আতঙ্কে গোটা বিশ্ব

Mysepik Webdesk: করোনা মহামারীর ফলে গত দু’বছরে বদলে গিয়েছে গোটা বিশ্বের চেনা ছবিটা। চিনের ইউহান শহর থেকে গোটা বিশ্বে থাবা বসিয়েছে করোনাভাইরাস। গোটা বিশ্বকে কিছুদিনের জন্য করে তুলেছিল ঘরবন্দি। যদিও ধীরে ধীরে মানুষ স্বাভাবিক জীবনযাপনের পথে এগিয়ে যাওয়ার মরিয়া চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে আরও একটি ভয়ঙ্কর খবর পাওয়া গেল, যা রীতিমতো আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে গোটা বিশ্বের কাছে।

আরও পড়ুন: নগ্ন হয়ে নাচতে হবে মহিলা কয়েদিদের, নির্দেশ দেওয়ায় বরখাস্ত পুলিশকর্মী

মুদ্রিক প্রাণীদের মার্কেট থেকে সার্স কিংবা করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে আগেই জানা গিয়েছে। এবার সামনে এল এমন এক সমীক্ষা, যা রীতিমতো ভয়ের কারণ হয়ে উঠছে। এখনও পর্যন্ত যা আশঙ্কা তা কেবলই হিমশৈলের চূড়া মাত্র। সমীক্ষা বলছে, সার্স কিংবা করোনাভাইরাস ছাড়াও আরও অসংখ্য প্রাণঘাতী ভাইরাসের আঁতুরঘর হল চিনের বিভিন্ন পশু মাংস ও সামুদ্রিক মাছের বাজারগুলি। চিনের খোলা বাজারে বিক্রি হওয়া এক ডজনেরও বেশি প্রাণী ও সামুদ্রিক মাছ এবং সেখান থেকে পাঠানো চিনের রেস্তোরাঁগুলিতে তৈরি হওয়া রকমারি ডিশ পরীক্ষা করে সেগুলির মধ্যে থেকে প্রায় ৭১টি ভাইরাসের সন্ধান মিলেছে। ওই ভাইরাসগুলি স্তন্যপায়ীদের শরীরে সংক্রমণ ছড়াতে সক্ষম। মধ্যে ১৮টি ভাইরাস মানুষ ও গৃহপালিত প্রাণীদের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: অফিস ছুটির পর আর বস ফোন করতে পারবেন না, চালু হল নতুন নিয়ম

ওই গবেষণাপত্রটির অন্যতম গবেষক এডওয়ার্ড হোমস জানিয়েছেন, ”এই সমীক্ষা থেকে আমরা পরিষ্কার বুঝতে পারছি যে, বণ্যপ্রাণীর ব্যবসা ও খোলা বাজারে তাদের বেচা-কেনা যেকোনও দিন বড়োসড়ো কোনও অতিমারীর সৃষ্টি করতে পারে।” প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসের আঁতুরঘর চিনে ফের মাথাচাড়া দিয়েছে করোনা সংক্রমণ। এর আগে চিনে এত বেশি অঞ্চলে এরকম মারাত্মকভাবে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে দেখা যায়নি। ডেল্টা স্ট্রেনের দাপটে হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাভাবিকভাবেই আরও কড়াকড়ি শুরু করেছে চিন প্রশাসন।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *