দিল্লিকাণ্ডে আহত ৮৬ পুলিশকর্মী, আহত ১ অধিবাসীও

Mysepik Webdesk: গতকাল ছিল প্রজাতন্ত্র দিবস। এদিন কৃষকদের ট্যাক্টর সমাবেশ বেরিয়েছিল। যদিও সকাল থেকেই দিল্লির বিভিন্ন জায়গায় এই সমাবেশকে ঘিরে পরিস্থিতি ক্রমে অশান্ত হয়ে উঠতে দেখা যায়। চূড়ান্ত বিশৃঙ্খলাও তৈরি হয়। জানা গিয়েছে যে, ঘটনায় ৮৬ জন পুলিশ কর্মী আহত হয়েছেন, তার মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। একজন সাধারণ নাগরিকেরও আহত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। এরমধ্যে লালকেল্লা, আইটিও, তিলকমার্গে আহতের সংখ্যা ৭৭। তাঁদের রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে খবর।

আরও পড়ুন: দিল্লিতে ধুন্ধুমার: অমিত শাহের জরুরি বৈঠক, হিংসার নিন্দা কিষান মোর্চার, মোতায়েন হবে অতিরিক্ত সুরক্ষা বাহিনী

আন্দোলনকারীরা ট্যাক্টর নিয়ে নির্ধারিত রুটের পরিবর্তে অন্য রুট দিয়ে এগিয়ে যেতে চাইলে পুলিশের বাধার মুখে পড়ে। এর ফলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এরপরে তাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। পুলিশ জানিয়েছে যে, আন্দোলনকারীরা ৩০০ ব্যারিকেড ভেঙেছেন। তাছাড়াও আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে ১৭টি সরকারি গাড়িতে। ভাঙচুর করা হয়েছে আইটি ডিটিসি-র বাসে। গাজিপুর, পাণ্ডবনগর ও সীমাপুরীর থানায় চারটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

আরও পড়ুন: লাগামহীন ট্যাক্টর র‍্যালি, ট্যাক্টর উল্টে মৃত ১ কৃষক, উত্তপ্ত ২৬শের রাজধানী, দায়ী খুঁজতে চলছে সুরতহাল

অনেকে মনে করছেন যে, এই ঘটনায় কৃষকদের মূল উদ্দেশ্য ব্যাহত হয়েছে। যদিও ৪০টি কৃষক সংগঠন থেকে প্রজাতন্ত্র দিবসের দিনের হিংসার এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানানো হয়েছে। প্রসঙ্গত, ২৬শের সন্ধ্যায় ট্র্যাক্টর মিছিল বাতিল করে দিয়ে কৃষকদের বিক্ষোভস্থলে ফিরে যেতে বলা হয়েছিল। একইসঙ্গে কৃষকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন আগামী দিনেও চলবে। খুব তাড়াতাড়ি পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *