Latest News

Popular Posts

একদিনে দেশজুড়ে করোনা আক্রান্ত ১ লক্ষ ৯৫ হাজারের কাছাকাছি

একদিনে দেশজুড়ে করোনা আক্রান্ত ১ লক্ষ ৯৫ হাজারের কাছাকাছি

Mysepik Webdesk: দেশজুড়ে দাপট দেখতে শুরু করেছে করোনাভাইরাস। ২১১ দিনের রেকর্ড ভাঙল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ৯৪ হাজার ৭২০ জন। সংক্রমণের হার ১১.৫ শতাংশ। একদিনে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৪৪২ জনের। দেশে অ্যাক্টিভ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লক্ষ ৫৫ হাজার ৩১৯ জন। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬০,৪০৫জন। একদিনে ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৮৬৮ জন।

আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত হলেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং

এদিকে ফেব্রুয়ারী মাসে আক্রান্তের গ্রাফ শীর্ষে পৌঁছাবে, এমনটাই দাবি করেছিলেন মার্কিন গবেষকরা। গত শনিবার ও রবিবার দেশে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্যেই এক লক্ষ পার করেছে। গবেষকরা জানাচ্ছেন, পরের মাসের মধ্যেই ভারতে ওমিক্রনে দৈনিক সংক্রমণ পাঁচ লাখ ছাড়িয়ে যাবে। এই প্রসঙ্গে আমেরিকার ইউনিভার্সিটি অফ ওয়াশিংটনের ইনস্টিটিউট ফর হেলথ মেট্রিকস অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশনের ডিরেক্টর ডক্টর ক্রিস্টোফার মুরে জানান, “ভারত এই মুহূর্তে ওমিক্রনের তৃতীয় ঢেউ চলছে। বিশ্বের অন্য অনেক দেশের মতো ভারতেও করোনার নয়া ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের ঢেউ আছড়ে পড়েছে। আমাদের আশঙ্কা, গত বছর এপ্রিলে ভারতে যখন ডেল্টার ঢেউ আছড়ে পড়েছিল, তার চেয়ে বেশি সংক্রমণ হবে আগামী মাসে। তবে এটাই বাঁচোয়া যে ডেল্টার চেয়ে ভয়াবহ হবে না ওমিক্রন।”

আরও পড়ুন: সুপ্রিম কোর্টের ৪ বিচারপতি-সহ করোনা আক্রান্ত ১৫০

তাঁর কথায়, “আগামী কয়েক দিনের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যার লম্বা লাফ দেখতে পাবে ভারতবাসী। তবে, এতে মোটেই ঘাবড়ানোর কোনও কারণ নেই। কিন্তু, সচেতন থাকতে হবে। কীভাবে ভারতে ওমিক্রন আক্রান্তের গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী হবে, তার একটি মডেল তৈরি করেছি আমরা। সেটা পরে প্রকাশ করা হবে। তবে দৈনিক সংক্রমণ কমপক্ষে পাঁচ লাখ করে হবে সে সম্পর্কে আমরা প্রায় নিশ্চিত। ফেব্রুয়ারী মাসেই ওমিক্রনের ঢেউ রেকর্ড স্পর্শ করবে। সুবিধে একটাই, ভারতের মানুষদের মধ্যে হাইব্রিড ইমিউনিটি রয়েছে। সেই কারণেই সেভাবে অমিক্রন আক্রান্ত হয়ে ভারতে মৃত্যুর ঘটনা বিশেষ ঘটছে না।”

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *