জ্যাভলিনে চূড়ান্ত হতাশ করলেন অণু রানি, ২৯ নম্বরে শেষ করে ছিটকে গেলেন অলিম্পিক থেকে

Mysepik Webdesk: টোকিও অলিম্পিকের ১২তম দিনে হতাশ করলেন ভারতীয় জ্যাভলার অণু রানি। এদিন তিনি ৩০ জন প্রতিযোগীর মধ্যে ২৯ নম্বর স্থান দখল করে প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হয়েছেন। তিনি নিজের খেলাটাই খেলতে পারেননি আজ।

আরও পড়ুন: ৪১ বছর পর অলিম্পিক ফাইনালে উঠে ইতিহাস গড়তে ব্যর্থ ভারতীয় পুরুষ হকি দল

গ্রুপ ‘এ’-তে ছিলেন অণু। এই গ্রুপে ছিলেন ১৫ জন জ্যাভলার। কিন্তু চূড়ান্ত হতাশ করে তিনি পান চতুর্দশ স্থান। এরই মধ্যে অবশ্য ক্রোয়েশিয়ার জ্যাভলার সারা কোলাক ডিসকোয়ালিফাই হয়ে যান। এর ফলে ১৪ জন প্রতিযোগীই টিকে ছিলেন। অণু রানি তিনবার জ্যাভলিন থ্রোয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন। তাঁর প্রথম থ্রো মাত্র ৫০.৩৫ মিটার দূরত্বে গিয়ে পড়ে। পরের দু’টি থ্রো যথাক্রমে ৫৩.১৯ মি. এবং ৫৪.০৪ মিটারই দূরত্বে পৌঁছতে সক্ষম হয়, যা ফাইনালে ওঠার জন্য যথেষ্ট ছিল না।

এই অণুই ২০১৯ সালে কাতারে অনুষ্ঠিত বিশ্ব অ্যাথলেটিক্সের সময় ৬১.১২ মিটার থ্রো করেছিলেন। এরপর পাতিয়ালায় অনুষ্ঠিত ফেড কাপে ৬৩.২৪ মিটার থ্রো করে অলিম্পিকে যোগ্যতা অর্জন করেছিলেন। উল্লেখ্য যে, ফেড কাপে করা থ্রোটি ছিল অণু রানির ব্যক্তিগত সেরা রেকর্ডও। সুতরাং, আজ যে তিনি নিজের ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের ধারেকাছেও ছিলেন না, তা এই পরিসংখ্যান দেখেই বোঝা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন: লভলিনা বনাম সুরমেনেলি: লড়াইয়ের কাহিনি দুই তরফেই

আজ অলিম্পিকে অটোমেটিক কোয়ালিফাই মার্ক ছিল ৬৩ মিটার। অণুর গ্রুপের পোল্যান্ডের মারিয়া অন্দ্রেজিক ৬৫.২৪ মিটার থ্রো করে সবার আগে ছিলেন। একইসঙ্গে গ্রুপ ‘বি’-তেও ১৫ জন প্রতিযোগীকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। এই গ্রুপে কেবলমাত্র ইউ এস ম্যাগি ম্যালোন ৬৩.০৭মিটার থ্রো করে যোগ্যতা অর্জন করতে পেরেছিলেন। অন্যদিকে, অণু রানি শেষতম স্থানে থাকা সারা কোলাকের থেকেই এগিয়ে ছিলেন। যার জেরে এই ভারতীয় জ্যাভলারকে অলিম্পিক থেকে ছিটকে যেতে হল। অণু রানির ২০০০ সালের সিডনি অলিম্পিকে গুরমিত কৌর ভারতের হয়ে এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছিলেন।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *