৫ রাজ্যের ভোটের রণকৌশল ঠিক করতে বিজেপির বৈঠকে

BJP

Mysepik Webdesk: আগামী বছরের শুরুতেই দেশের পাঁচ রাজ্যে নির্বাচন। উত্তরপ্রদেশ তো বটেই, উত্তরাখণ্ড, পঞ্জাব, গোয়া এবং মণিপুরে হতে চলেছে ভোট। আর আগামী বছরের শেষের দিকে নির্বাচন হবে গুজরাত এবং হিমাচল প্রদেশে। এই পরিস্থিতিতে সেই নির্বাচনগুলির দিকে লক্ষ্য রেখেই রবিবার বিজেপি-র জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠক বসল রাজধানী দিল্লিতে। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, ভারতীয় জনতা পার্টির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বাংলার প্রতিনিধিরাও৷ সূত্রের খবর ছিল, বাংলায় নির্বাচন ও উপনির্বাচনের ফলাফল নিয়েও আলোচনা হতে পারে৷ এদিনে বৈঠক থেকে বঙ্গবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়েছে নাড্ডা৷ 

আরও পড়ুন: সেকেন্ড ওয়েভে টেস্টের তুলনায় দৈনিক কোভিড টেস্ট এখন অর্ধেক, দেশে নতুন সংকটের আশঙ্কা

দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা বললেন, ”বাংলায় বিজেপি ইতিহাস তৈরি করেছে। আমরা ৩ শতাংশ ভোট পেতাম, সেখান থেকে আমরা ৩৭ শতাংশ ভোট পেয়েছি। ইতিহাসে এমন নজির নেই। রাজনীতির পড়ুয়াদের কাছেও এ বিষয়টি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ।” বাংলায় আমাদের সংগঠন মজবুত হয়েছে। যদিও আমাদের কর্মীদের ওপর হামলা হয়েছে। ৫৭  জন খুন হয়েছেন। বহু মানুষ ঘরছাড়া হয়েছেন। আশ্রয় শিবিরে অনেকে রয়েছে।”

আরও পড়ুন: আফগানিস্তান ইস্যুতে ভারতের ডাকা বৈঠকে যোগ দিচ্ছে রাশিয়া-ইরান, থাকছে না পাকিস্তান

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার নিশানা করে নাড্ডা বলেন, “কোভিড নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করা হচ্ছে না বাংলা থেকে। মোদিজি টিকা দিচ্ছেন। কিন্তু বাংলার মানুষকে টিকা দেওয়া হচ্ছে না। এটা অমানুষিকতার দৃষ্টান্ত।” সামনের দিনের বিধানসভা ভোটের দিকে নজর রেখেই বিজেপি কর্মসমিতির বৈঠকে ‘হর ঘর দস্তক’ কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। করোনা প্রতিষেধক হয়েছে কিনা, তা জানতে বাড়ি-বাড়ি যাবেন বিজেপি কর্মীরা। ৫ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই ‘হর ঘর দস্তক’ কর্মসূচি বড় পদক্ষেপ হতে পারে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *