মরচে ধরেছে চাঁদের মেরু অঞ্চলে! চাঞ্চল্যকর ছবি পাঠাল চন্দ্রযান ১

Mysepik Webdesk: ২০০৮ সালে ভারতের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ইসরো চন্দ্রযান-১ লঞ্চ করেছিল। সেই চন্দ্রযানের অরবিটার এখনও সঠিকভাবে চাঁদকে প্রদক্ষিণ করে চলেছে এবং পৃথিবীতে পাঠিয়ে চলেছে চন্দ্রপৃষ্ঠের বহু অজানা ছবি। সেরকমই সম্প্রতি চন্দ্রযান-১ এর পাঠানো কয়েকটি ছবিতে দেখা গিয়েছে চাঁদের মেরু অঞ্চলে মরচে ধরেছে। গত রবিবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং জানিয়েছেন একথা। তিনি বলেন, “ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর চন্দ্রযান-১ এর পাঠানো কয়েকটি ছবি দেখে মনে হচ্ছে চাঁদের মেরু অঞ্চলে মরচে ধরতে শুরু করেছে।”

আরও পড়ুন: বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের দূরতম নক্ষত্র ছায়াপথের হদিস দিলেন ভারতীয় বিজ্ঞানীরা

চাঁদে জল ও অক্সিজেনের উপস্থিতি আদৌ আছে কিনা তা নিয়ে এখনও বিজ্ঞানীদের মধ্যে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে। তবে চাঁদে লোহা, পাথর যথেষ্ট পরিমাণে আছে বলে জানা গিয়েছে। এদিকে মরচে ধরার জন্য প্রয়োজন অক্সিজেনের উপস্থিতি। কারণ জল ও অক্সিজেনের সংস্পর্শে আসলেই লোহায় মরচে পড়ে। সেক্ষেত্রে যদি চাঁদে সত্যি মরচে পড়ে তাহলে এই ঘটনা চাঁদে অক্সিজেনের উপস্থিতির আরও জোরালো প্রমান দিল।

আরও পড়ুন: শেষ হল উড়ন্ত গাড়ির সফল পরীক্ষা, আগামী ২০২৩ সালের মধ্যে আসছে বাজারে

এই প্রসঙ্গে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসা জানিয়েছে, পৃথিবীর জলবায়ুর প্রভাবে চাঁদে মরচে ধরার ঘটনা অস্বাভাবিক নয়। নাসার দাবি, চাঁদে মরচে ধরার ঘটনা নতুন নয়। হতে পারে কয়েক কোটি বছর আগে থেকেই মরচে ধরে চাঁদের ক্ষয় হয়েছে। কোটি কোটি বছর আগে হয়তো বায়ুমণ্ডল ছিল চাঁদে, কিন্তু মাধ্যাকর্যণ বল প্রায় না থাকার ফলে সেই বায়ুমণ্ডল আর ধরে রাখতে পারেনি চন্দ্রপৃষ্ঠ।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *