তাউটের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত ভারতের পশ্চিমাঞ্চল, মৃত্যু অন্তত ২১ জনের

Mysepik Webdesk: আরব সাগরের ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় তাউটের আঘাতে এখনও পর্যন্ত ২১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। এছাড়াও শতাধিক মানুষ নিখোঁজ। বিস্তীর্ণ এলাকার গাছপালা উপড়ে গিয়েছে। মোবাইল টাওয়ার ভেঙে পড়েছে। এছাড়া খুঁটি উপড়ে বিভিন্ন এলাকার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এই মুহূর্তে হাজার হাজার মানুষ বিদ্যুতহীন হয়ে পড়েছেন। দিল্লির আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, স্থলভাবে ঝড়টি আছড়ে পড়ার সময় তার গতিবেগ ছিল ঘন্টায় ১৮৫ কিলোমিটার। বিগত ৩০ বছরের মধ্যে এটি সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়।

আরও পড়ুন: আমফানের থেকেও ভয়ঙ্কর! সপ্তাহান্তে আছড়ে পড়তে পারে ‘যশ’

ঝড়ের দাপটে মহারাষ্ট্রের উপকূলে তেল কূপ খননের কাজে নিয়োজিত একটি জাহাজ ঢেউয়ের তোড়ে ডুবে গিয়েছে। ওই জাহাজটিতে ২৭৩ জন আরোহী ছিল। তাদের মধ্যে শতাধিক আরোহী এখনও পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছেন। ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জাহাজ থেকে ১৭৭ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে খারাপ আবহাওয়ার মধ্যেও উদ্ধারকার্য চলবে বলে জানিয়েছে ভারতীয় নৌসেনা।

আরও পড়ুন: শুক্রবার থেকেই রাজ্যে চালু হচ্ছে ‘দুয়ারে রেশন’

অন্যদিকে গুজরাতের উপকূলীয় শহর দিউয়ের আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়ের কারণে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা ১০ ফুট পর্যন্ত বেড়েছিল। সেখানে বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৩৩ কিলোমিটার। ঘূর্ণিঝড় থেকে রক্ষার জন্য গুজরাটে দুই লাখেরও বেশি মানুষকে নিরাপদ এলাকায় সরিয়ে নেওয়া হয় এবং কয়েকটি সমুদ্র বন্দর ও বিমানবন্দর বন্ধ করে দেওয়া হয়।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *