কোভিশিল্ডের দু’টি ডোজ নেওয়ার মধ্যে বাড়ল সময়

Mysepik Webdesk: করোনা নিয়ন্ত্রনে এই মুহূর্তে ভারতে দু’টি টিকা প্রদান করা হচ্ছে। ভারত বায়োটেকের (Bharat Biotech) তৈরি কোভ্যাকসিন (Covaccin) এবং সেরাম ইনস্টিটিউটের (Serum Institute) তৈরি কোভিশিল্ডে (Covishield)। যদিও রাশিয়ার তৈরি স্পুটনিক ভি (Sputnik V) ভারতে এসে পৌঁছালেও এখনও পর্যন্ত সেই টিকা কাউকেই দেওয়া হয়নি। এবার কোভিশিল্ডের প্রথম টিকা নেওয়ার পর ওই ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় টিকা কবে নেওয়া যেতে পারে সেই সংক্রান্ত একটি বড়োসড়ো সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তর।

আরও পড়ুন: জোগান বাড়াতে ভ্যাকসিনের ফর্মুলা দেওয়া হোক অন্যান্য সংস্থাকে, দাবি কেজরিওয়ালের

স্বাস্থ্য দপ্তরের ঘোষণা অনুযায়ী জানা গিয়েছে, কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজ নেওয়ার ১২ থেকে ১৬ সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া যাবে। এর আগে এই দু’টি ডোজের মধ্যে সময়ের পার্থক্য ছিল ২৮ দিন। এবার সেই সময়ের ব্যবধান বাড়িয়ে করা হয়েছে ১২ থেকে ১৬ সপ্তাহ। দেশজুড়ে টিকাকরণ শুরু হওয়ার পর থেকেই ভ্যাকসিনের অকাল দেখা দিয়েছে। বিপুল পরিমান টিকার চাহিদা মেটাতে রীতিমতো হিমশিম খেয়ে যাচ্ছে সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া। এই পরিস্থিতিতে টিকার ব্যবধান বাড়িয়ে দেওয়ার ফলে উপকৃত হবেন বহু মানুষ। বিশেষজ্ঞ মহলের দাবি, এর ফলে এই টিকা আরও বেশি কার্যকরী হবে।

আরও পড়ুন: কর্ণাটক, তামিলনাড়ুর পর এবার তেলেঙ্গানায় ১০ দিনের লকডাউন

এই বিষয়ে কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করে জানিয়েছেন, “এর আগে দু’টি ডোজের মধ্যে চার সপ্তাহের ব্যবধান রাখা হয়েছিল। পরবর্তীকালে তা ছয় সপ্তাহ করা হল। এখন দুটি ডোজের মধ্যে ১২ থেকে ১৬ সপ্তাহের ব্যবধানে রাখার প্রস্তাব রাখা হচ্ছে। ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থা সেরাম পর্যাপ্ত পরিমাণে টিকা উৎপাদন করতে না পারায় কি এই সময়সীমার পরিবর্তন?”

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *