করোনা প্রতিরোধে আরও এক নতুন ওষুধের অনুমোদন ভারতে

Mysepik Webdesk: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে জর্জরিত ভারতবাসী। গত তিনদিন ধরে ৪ লক্ষেরও বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে ভারতের হাতে এলো করোনা প্রতিরোধের আরও একটি অস্ত্র। এবার ডিআরডিও (DRDO)-এর তৈরি নতুন ওষুধ 2-DG (2-deoxy-D-glucose) ছাড়পত্র পেল ভারতে। এই ছাড়পত্র দিয়েছে ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া (DCGI)। ওষুধ নির্মাণ সংস্থা ডিআরডিও জানিয়েছে এই ওষুধটি হালকা থেকে মৃত্যু যেকোনও উপসর্গযুক্ত রোগীর ক্ষেত্রে দারুন কার্যকরী।

আরও পড়ুন: কোভিড রোধে চিনের সহযোগিতা প্রয়োজন: জয়শঙ্কর

এই ওষুধটি তৈরি করা হয়েছে ডক্টর রেড্ডি ল্যাবরেটরি (Doctor Reddy Laboratory) ও ইনস্টিটিউট অফ নিউক্লিয়ার মেডিসিন এবং অ্যালায়েড সায়েন্স (Institute Of Nuclear Medicine And Allied Sciences) যৌথ উদ্যোগে। সংস্থার দাবি তাঁরা এই ওষুধটি ২০২০ সালের মে থেকে অক্টোবর মাস পর্যন্ত ট্রায়াল চালিয়েছিল। সেই ট্রায়ালে বিজ্ঞানীরা দারুন ফলাফল পেয়েছে। 2-DG ওষুধ ব্যবহার করার অল্প দিনের মধ্যেই করোনা আক্রান্ত রোগীদের কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

আরও পড়ুন: কেরল-কর্নাটকের পর এবার তামিলনাড়ু, জারি হল দু’সপ্তাহের লকডাউন

এই নিয়ে ৩০ দিনের মধ্যেই দু’টি ওষুধের অনুমোদন দিয়েছে ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া। প্রথমটি ছিল জাউডাস ক্যাডিলা (Zydus Cadila)-র ভিরাফিন (Virafin)। এই ওষুধটিও করোনা রোগীদের ক্ষেত্রে দারুণ কার্যকরী। সংস্থা দাবি করেছে, এই ওষুধ প্রয়োগে শরীরে অক্সিজেনের ঘাটতির সম্ভাবনা অনেকটাই কমবে। পাশাপাশি মৃদু উপসর্গবিশিষ্ট রোগীদের ক্ষেত্রেও এই ওষুধ দারুন কাজ করে। জাইডাসের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, দেশের ২০ থেকে ২৫টি সেন্টারে তারা প্রাপ্তবয়স্ক স্বেচ্ছাসেবকদের উপর এই ড্রাগটি র পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করছে, যার ফলাফল আশানুরূপ হয়েছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *