হার বিরাট-ব্রিগেডের, সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া

Mysepik Webdesk: করোনাকালে প্রথমবার ভারতীয় ক্রিকেটাররা আন্তর্জাতিক ম্যাচে মাঠে নামলেন। অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে শুরু হল তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে ভারতের সামনে ৩৭৫ রানের বিশাল লক্ষ্য রাখে অস্ট্রেলিয়া। জবাবে, ভারতীয় দল শুরুতেই বিপর্যয়ের মধ্যে পড়ে। তবে এরপর অসাধারণ জুটি গড়েন ওপেনার শিখর ধাওয়ান এবং হার্দিক পান্ডিয়া। ওয়ানডে কেরিয়ারে ধাওয়ান তাঁর ৩০তম এবং হার্দিক তাঁর পঞ্চম অর্ধশতক করেন।

আরও পড়ুন: ফিঞ্চ-স্মিথের জোড়া সেঞ্চুরি, পাহাড়প্রমাণ লক্ষ্যের সামনে টিম ইন্ডিয়া

জোশ হ্যাজলউড ভারতকে প্রাথমিক ঝটকা দেন। প্রথম তিনটি উইকেট তিনিই শিকার করেন। শ্রেয়স আইয়ার (২) হ্যাজলউডের বলে উইকেটরক্ষক অ্যালেক্স কেরির হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখেন। এই হ্যাজলউডই ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে (২১) ফেরান। মার্কস স্টোইনিস ক্যাচ নেন বিরাটের। এর আগে অবশ্য হ্যাজেলউডেরই শিকার হয়েছিলেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল (২২)। তিনি গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন। এই তিন ব্যাটসম্যানের আউট হওয়া শর্ট বলে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের দুর্বলতা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছিল। এরপর উইকেট-কিপার ব্যাটসম্যান লোকেশ রাহুল ১২ রান করে আউট হন। লেগস্পিনার অ্যাডাম জাম্পার বলে স্টিভ স্মিথের বিশ্বস্ত হাতে ধরা পড়েন রাহুল।

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে কোহলির দুর্বল ফর্ম অবিরত রইল। এখানে এখন পর্যন্ত খেলেছেন ৬ ম্যাচে তিনি মাত্র ৫৭ রান করেছেন। আজকের ম্যাচে তাঁর ইনিংস থেমে যায় মাত্র ২১ রানে। এর আগে, তিনি ৫ ম্যাচে কোহলির রান যথাক্রমে ২১, ৩, ১, ৮ এবং ৩।

আরও পড়ুন: ভারত-অস্ট্রেলিয়া: নিরাপত্তারক্ষীদের নজর এড়িয়ে মাঠে ঢুকে আদানি গ্রুপের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ

শিখর ও পান্ডিয়ার জুটি ভারতকে স্বপ্ন দেখাচ্ছিল। তবে এরই মধ্যে ঘটে যায় ছন্দপতন। জাম্পার বলে ব্যক্তিগত ৮৬ বলে ৭৪ রানে আউট হন শিখর। তাঁর ইনিংসটি সাজানো ছিল ১০টি চার দিয়ে। দু’জনের মিলে তোলেন ১২৮ রান। এরপর ক্রিজে আসেন রবীন্দ্র জাদেজা। কিছুক্ষণের মধ্যে অজি দলের পরিত্রাতার ভূমিকা ফের একবার নেন অ্যাডাম জাম্পা। তাঁর বলে তুলে মারতে গিয়ে বাউন্ডারি লাইনে দাঁড়ানো মিচেল স্টার্কের হাতে জমা পড়েন হার্দিক। তাঁর ৭৬ বলের ৯০ রানের ইনিংসটিতে ছিল ৭টি চার এবং ৪টি ছয়। ভারতের শেষ আশা রবীন্দ্র জাদেজা (২৫)-কে ফেরান জাম্পা। এই অজি লেগস্পিনার তাঁর দশ ওভারে ৫৪ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট দখল করে। ভারতের ইনিংস শেষ হয় ৩০৮/৮ অবস্থায়। বিরাট-ব্রিগেড ৬৭ রানে হেরে সিরিজে পিছিয়ে পড়ল।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *