সিরিজ খোয়াল ভারত, সামনে আসছে টিম ইন্ডিয়ার বোলারদের দুর্বলতা

Mysepik Webdesk: সিডনিতে দ্বিতীয় ওয়ানডে-তেও দুরন্ত অজি ব্যাটসম্যানরা। এদিন টস জিতে অস্ট্রেলিয়া প্রথমে ব্যাট করে ৩৯০ রানের টার্গেট দেয় ভারতকে। এদিনও দুই অজি ওপেনার অ্যারোন ফিঞ্চ এবং ডেভিড ওয়ার্নার ছিলেন খুনে মেজাজে। তাঁরা দু’জন মিলে স্কোরবোর্ডে তোলেন ১৪২ রান। ফিঞ্চ ব্যক্তিগত ৬০ রানের মাথায় মহম্মদ শামির বলে আউট হন। ওয়ার্নার করেন ৮৫। তিনি রানআউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন।

আরও পড়ুন: সত্যজিৎ ঘোষ: ফ্ল্যাশব্যাকে আশির দশকের কলকাতা ফুটবল দুনিয়া

স্টিভ স্মিথ আগের দিন যেখানে শেষ করেছিলেন, ঠিক সেখান থেকেই শুরু করেন আজ। এদিন ভারতীয় বোলারদের পাড়ার বোলারে পরিণত করে ৬৪ বলে ১০৪ রানের অসামান্য ইনিংস উপহার দেন তিনি। তাঁর ইনিংসটি সাজানো ছিল ১৪টি চার এবং ২টি ছয় দিয়ে। অস্ট্রেলিয়া ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৮৯ রান করে। এটি ভারতের বিপক্ষে অজি দলের সর্বোচ্চ রান। ২৭ নভেম্বর সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে এই প্রথম অস্ট্রেলিয়া ভারতের বিপক্ষে সর্বোচ্চ রান করেছিল। মাত্র একদিনের ব্যবধানে সেই রেকর্ডও ভেঙে দেয় তারা। ভারতের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৪৩৮ রানের রেকর্ড রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার। ২০১৫ সালের মুম্বইতে এই কীর্তি স্থাপন করে প্রোটিয়ারা।

তবে ভারতীয় বোলারদের দুর্বলতা সামনে আসছে। মহম্মদ শামি ১০ ওভারে দেন ৭৩ রান। বুমরাহ দেন ১০ ওভারে ৭৯। নভদীপ সাইনি ৭ ওভারে ৭০। এই তিন পেসার ২৭ ওভারে ২২২ রান দিয়ে মাত্র ২টি উইকেট নিয়েছেন। এহেন পারফরম্যান্স চিন্তায় রাখছে রবি শাস্ত্রীর ছেলেদের।

আরও পড়ুন: দু’দিনে দুই ডার্বি জয়, আজ রবিবার ছুটির দিনে সবুজ মেরুন প্রেমীদের পাতে হয়তো গলদা চিংড়ির পদ

Image

জবাবে, ওপেনার মায়াঙ্ক আগরওয়াল ২৮ ও শিখর ধাওয়ান ৩০ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। প্যাট কামিন্স নেন মায়াঙ্কের উইকেট। অন্যদিকে, জোশ হ্যাজলউডের শিকার হন ধাওয়ান। এরপর হাল ধরেন ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলি। তিনি ওয়ানডে কেরিয়ারে ৫৯তম হাফসেঞ্চুরি করেন। অধিনায়ককে ভালোই সাথ দিচ্ছিলেন শ্রেয়স আইয়ার। তবে ব্যক্তিগত ৩৮ রান হেনরিকেসের বলে স্টিভ স্মিথের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়ন ফেরেন তিনি। ক্রিজে আসেন লোকেশ রাহুল। তিনি ও বিরাট মিলে মোমেন্টামকে ধরে রেখেছিলেন। দুর্দান্ত ছন্দে দেখা যাচ্ছিল কোহলিকে। ৩৪.৫ ওভারে জোস হ্যাজলউডের বলে একটি পুল শট মারেন বিরাট। তবে সেই শট মোসেস হেনরিকেসের হাতে জমা পড়েন। নিজের দেহকে শূন্যে ভাসিয়ে কোহলির যে ক্যাচটা হেনরিকেস নেন, তা সত্যিই মনে রাখার মতো।

বিরাট আউট হতেই দেওয়াল লিখনটা মোটামুটি স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল। লোকেশ রাহুল ব্যক্তিগত ৭৬ রানে আউট হন। এরপর হার্দিক পান্ডিয়া (২৮) এবং রবীন্দ্র জাদেজা (২৪) চেষ্টা করলেও টার্গেটটা অনেক বেশি ছিল। তাই যা হবার তা-ই হল। ভারতের ইনিংস থেমে গেল ৯ উইকেটে ৩৩৮ রানে। ৫১ হেরে ওয়ানডে সিরিজ খোয়াল বিরাট বাহিনী।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *