জয় দিয়ে এএফসি-২৩ এশিয়ান কাপ কোয়ালিফায়ারে অভিযান শুরু করল ভারত

সম্রাট মিশ্র

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতীয় ক্রিকেট দলের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভরাডুবির দিনে ভারতবাসীর মুখে কিছুটা হাসি ফোটাল ভারতীয় অনূর্ধ্ব-২৩ ফুটবল দল। দুবাই থেকে মাত্র ১৩৭ কিলোমিটার দূরে ফুজাইরাহ্ স্টেডিয়ামে অনবদ্য ফুটবল খেলে ওমানকে পরাজিত করল ব্লু টাইগাররা। অনূর্ধ্ব-২৩ এএফসি এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বের গ্রুপ ‘ই’র ম্যাচে ওমানের মুখোমুখি হয়েছিল ইগর স্টিম্যাচের ছেলেরা। ২০ অক্টোবর সদ্য বিজয়ী সাফ কাপের দলের ৫ জন ফুটবলার সহ ২৮ জন ফুটবলার নিয়ে মরু শহরে উড়ে গিয়েছিলেন স্টিম্যাচ। একদিকে বেশিরভাগ অচেনা ফুটবলার আর অন্যদিকে প্রস্তুতির সময় কম, তাই স্টিম্যাচের কাছে এই অল্প সময়ের মধ্যে ভারতীয় অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে গুছিয়ে নেওয়া ছিল যথেষ্ট চ্যালেঞ্জের।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের মঞ্চে পাকিস্তানের কাছে প্রথমবার পরাজিত ভারত

ওমানের বিরুদ্ধে ৪-৪-২ ছকে দল সাজিয়ে ছিলেন স্টিম্যাচ।  গোলে ধীরাজ সিং, রক্ষণভাগে নরেন্দ্র গেহলট, দীপক টাঙরি, আশিস রাই,  আকাশ মিশ্র, মাঝমাঠে জিকসন, সুরেশ সিং, অনিকেত যাদব, রাহুল কে পি, আক্রমণভাগে রহিম আলি এবং বিক্রম প্রতাপ সিং।  ওমানের বিরুদ্ধে ম্যাচে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দেন সুরেশ। ম্যাচের শুরু থেকেই ভারতীয় দল দাপট দেখায়। ম্যাচের ৫ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি বক্সে বিক্রম প্রতাপ সিংকে ফাউল করেন ওমানের ডিফেন্ডার। রেফারি ভারতের পক্ষে পেনাল্টি দেন। ম্যাচের ৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে ভারতকে এগিয়ে রহিম আলি। ম্যাচের ৩৮ মিনিটের মাথায় রহিম আলির পাস থেকে অনবদ্য গোল করে ভারতের পক্ষে ২-০ করেন বিক্রম প্রতাপ সিং। প্রথমার্ধে ২ গোলে এগিয়ে থেকে মাঠ ছাড়েন সুরেশরা।

আরও পড়ুন: মিতালি রাজের জন্য অনশনে বসেছিলেন তাঁর এক ভক্ত

Image

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই ওমান আক্রমণাত্মক খেলা শুরু করে।  একের পর এক ওমানি আক্রমণ প্রতিহত করে ভারতীয় রক্ষণ। ম্যাচের ৬৪ মিনিটের মাথায় ফ্রি-কিকের শট অসাধারণভাবে সেভ করেন ধীরাজ। এছাড়াও ধীরাজের অসামান্য গোলকিপিং ভারতীয় দলের রক্ষাকবচ হয়ে দাঁড়ায়। দ্বিতীয়ার্ধে ভারতীয় দল কয়েকটি সুযোগ নষ্ট না করলে আরও ব্যবধান বাড়াতে পারত। ম্যাচের একেবারে শেষ লগ্নে ৮৯ মিনিটে ওমানের হয়ে ব্যবধান কমান ওয়ালিদ সেলিম। ম্যাচ শেষে ২-১ গোলে জিতে মাঠ ছাড়ে ইগর স্টিম্যাচের দল। ভারতের পরবর্তী ম্যাচ আগামী বুধবার সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর বিরুদ্ধে। আগামী ম্যাচে শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে ভারতীয় দল  কতটা সাফল্য ধরে রাখতে পারে, সেটাই এখন দেখার। 

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *