Latest News

Popular Posts

যাত্রীদের শিষ্টাচার শেখাচ্ছে ভারতীয় রেল, দূরপাল্লার ট্রেনে জারি একাধিক নির্দেশিকা

যাত্রীদের শিষ্টাচার শেখাচ্ছে ভারতীয় রেল, দূরপাল্লার ট্রেনে জারি একাধিক নির্দেশিকা

Mysepik Webdesk: রাতের ট্রেনে সহযাত্রীরা যাতে কোনও অসুবিধায় না পড়েন, তাঁদের ঘুমের যাতে ব্যাঘাত না ঘটে, তার জন্য ভারতীয় রেলওয়ে বোর্ডের তরফ থেকে নয়া নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। ওই নির্দেশিকাকে ভারতীয় রেল শিষ্টাচার নির্দেশিকা বলে জানিয়েছে। ইতিমধ্যেই সেই নির্দেশিকা দেশের প্রতিটি জোনের প্রিন্সিপাল চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজারদের কাছে পাঠানো হয়েছে। ট্রেন যাত্রীরা সেই বিধি যথাযথ ভাবে পালন করছেন কিনা, তা নজর রাখবেন টিকিট পরীক্ষক, আরপিএফ, ক্যাটারিং, ইলেকট্রিক্যাল ও মেকানিক্যাল বিভাগের অন বোর্ড কর্মীরা।

আরও পড়ুন: সোমবার থেকে মহারাষ্ট্রে খুলে যাচ্ছে সব স্কুল, বাংলায় কবে?

শিষ্টাচারের নির্দেশ অনুযায়ী, ট্রেনের কামরায় যাত্রাকালে উচ্চস্বরে বা জোর গলায় ফোনে কথা বলা যাবে না। কামরায় উচ্চস্বরে মিউজিক বাজানো যাবে না। রাত ১০টা বাজলেই কামরার আলো নিভিয়ে ফেলতে হবে। রাত ১০টার পরে যাত্রীদের মৃদুস্বরে কথাবার্তা বলতে হবে, যাতে সহযাত্রীদের কোনও অসুবিধা না হয়। যাত্রীদের পাশাপাশি ট্রেনের অন বোর্ড কর্মীদেরও বেশ কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে। কর্মীদের অবশ্যই নম্র, ভদ্র ও কৌশলী হতে হবে। ষাটোর্ধ্ব যাত্রী, শারীরিক ভাবে অক্ষম, রোগী ও একলা সফর করা মহিলা যাত্রীদের ওপর বিশেষ নজর দিতে হবে। ভারতীয় রেলের এক আধিকারিক জানাচ্ছেন, বিগত কয়েক মাস ধরে দূরপাল্লার ট্রেনে ভ্ৰমণ করার সময় যাত্রীদের কাছ থেকে এই ধরণের সমস্যা নিয়ে প্রচুর অভিযোগ এসেছে।

আরও পড়ুন: ভারতের বিরুদ্ধে ভুয়ো খবর ছড়ানো ইউটিউব চ্যানেল-ওয়েবসাইট ব্লক করা নিয়ে সরব অনুরাগ ঠাকুর, কটাক্ষ কপিল সিবালের

দেখা গিয়েছে, দূরপাল্লার ট্রেনের মধ্যে এক শ্রেণীর যাত্রী মোবাইলে জোরে জোরে কথা বলতে থাকেন, যা অন্যান্য যাত্রীদের কাছে চরম অসুবিধার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এছাড়াও এক শ্রেণীর যাত্রী রাত বাড়লেই কামরাতে উচ্চস্বরে চটুল গান বাজাতে থাকেন, অনেকেরই তা অপছন্দ হয়। অনেক যাত্রী আবার রাত বাড়লেও কামরার মধ্যে আলো জেলে আড্ডা চালিয়ে যান। তাতে অনেক যাত্রীদেরই রাতে ঘুমানোর ক্ষেত্রে অসুবিধা হয়। প্রতিবাদ করে অনেক ঝামেলার ঘটনা ঘটেছে রেলের কামরার মধ্যে। অভিযোগ গড়িয়েছে আরপিএফ পর্যন্ত। তবে, কিছু কিছু ক্ষেত্রে এর সমাধান করা গেলেও অনেক ক্ষেত্রেই তা সম্ভব হয়নি। আগামী দিনে এমন অভিযোগ যাতে আর না আসে সেই দিকে নজর দিতে চাইছে ভারতীয় রেল।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *