লাদাখ নিয়ে চিনের দাবি উড়িয়ে উপযুক্ত জবাব দেওয়া হল ভারতের তরফ থেকে

new bridge at ladakh

Mysepik Webdesk: লাদাখকে বেআইনিভাবে ভারত কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল বলে ঘোষণা করেছে। ভারতের এই ঘোষণার মান্যতা দেয় না চিন। পাশাপাশি অরুণাচল প্রদেশকেও ভারতের অংশ হিসেবে মান্যতা দেয় না চিন। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে একথাই জানিয়েছিলেন চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান। তার পরের দিনই ভারতের তরফ থেকে উপযুক্ত জবাব দেওয়া হল। বেজিংয়ের এই অভিযোগকে উড়িয়ে দিয়ে এদিন ভারতের পক্ষ থেকে পাল্টা প্রশ্ন করা হয়েছে, চিনের সেনাবাহিনী কেন সীমান্তের ওপারে নিজেদের দিকে একের পর এক রাস্তা এবং যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি করে চলেছে?

আরও পড়ুন: কোভিড টেস্ট করতে গিয়ে রিপোর্ট পজিটিভ আসায় ডাক্তারদের মারধর করল যুবক

সোমবার ভারতের কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী সীমান্ত এলাকায় মোট ৪৪টি সেতুর উদ্বোধন করেন, যার মধ্যে ৮টি সেতু রয়েছে লাদাখে এবং ৮টি রয়েছে অরুণাচল প্রদেশের সীমান্তে। জানা গিয়েছে, নতুন এই সেতুগুলি চালু হওয়ায় পর লাদাখের সাধারণ মানুষের সুবিধে হবে, তাছাড়া ওই সেতুগুলি প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা থেকেও অনেকটা দূরে অবস্থিত। ভারতীয় অধিকারীকে দাবি, ভারত-চিনের দ্বিপাক্ষিক আলোচনার সময় কেন তখন চিন লাদাখে ভারতের পরিকাঠামোগত নির্মাণ নিয়ে প্রশ্ন তোলেনি? নতুন করে কেনই বা এই বিষয়ে আপত্তি জানাচ্ছে চিন?

আরও পড়ুন: মর্মান্তিক! হায়দরাবাদে প্রবল বৃষ্টিতে দেওয়াল ভেঙে চাপা পড়ে মৃত ৯

বিশেষজ্ঞদের মতে চিনের এই আপত্তির পেছনে রয়েছে অন্য কারণ। আসলে লাদাখে পরিকাঠামোগত উন্নয়ন ঘটলে আগামী দিনে তা পাক অধিকৃত কাশ্মীর এবং খুনজেরাব পাস হয়ে প্রস্তাবিত চিন- পাকিস্তান করিডরের পক্ষে বিপজ্জনক হতে পারে। এদিকে চিনের এই প্রকল্পের তীব্র বিরোধিতা করেছে ভারত, যা ইতিমধ্যেই চিন পাকিস্তানকে সেকথা জানিয়ে দিয়েছে।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *