ক্যাপ্টেন হিসেবে আর আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হওয়া হবে না কোহলির

Mysepik Webdesk: ১১ অক্টোবর রাতে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর এলিমিনেটর ম্যাচ হেরে গিয়েছিল কেকেআরের বিরুদ্ধে। এভাবেই অধিনায়ক হিসাবে আইপিএল ট্রফি জয়ের স্বপ্ন ভেঙে যায় বিরাট কোহলির। এবারের আইপিএলের দ্বিতীয় পর্ব শুরু আগে কোহলি ঘোষণা করে দিয়েছিলেন যে, টুর্নামেন্টের পর আরসিবির অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়াবেন। এলিমিনেটর ম্যাচের পর তিনি এটাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন যে, কেবল আরসিবির হয়েই আইপিএল খেলবেন। তবে দলপতি হিসেবে আর আইপিএল জিততে পারবেন না তিনি। বিরাট কোহলি আইপিএলের কোনও দলের এমন একজন অধিনায়ক, যিনি ১০০টিরও বেশি ম্যাচ দলের অধিনায়কত্ব সামলেছেন। কিন্তু তাঁর প্রিয় আরসিবিকে কখনোই চ্যাম্পিয়ন করাতে পারেননি।

আরও পড়ুন: বিসিসিআইয়ের টাকা আছে বলে অশ্বিনকে ছেড়ে দিয়েছিল আইসিসি: সাঈদ আজমল

কোহলি আইপিএলে ১৪০টি ম্যাচে আরসিবির নেতৃত্ব দিয়েছেন। এর মধ্যে তিনি ৬৬টি ম্যাচ জিতেছেন ও ৭০টি ম্যাচে পরাজয়ের মুখোমুখি হতে হয়েছিল তাঁকে। চারটি ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণ হয়নি। তাঁর নেতৃত্বে ২০১৬ সালে একবারই মাত্র ফাইনালে উঠেছিল আরসিবি। তিনবার প্লে-অফে তাদের যাত্রা শেষ হয়ে গিয়েছিল। ২০১৭ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত গ্রুপ পর্বের একেবারে তলানিতে থেকে শেষ হয়েছিল কোহলিদের আইপিএল অভিযান। কোহলি এদিন টুইটারে লিখেছেন, “আমরা যে ফলাফল চেয়েছিলাম তা হয়নি। তবে পুরো টুর্নামেন্টে ছেলেরা যেভাবে খেলেছে, তাতে অনেক গর্বিত। এটি একটি হতাশাজনক সমাপ্তি কিন্তু আমরা মাথা উঁচু করে রাখতে পারি। আপনাদের ক্রমশ সহায়তার জন্য সমস্ত সমর্থক, ম্যানেজমেন্ট এবং সহায়তা কর্মীদের ধন্যবাদ।”

আরও পড়ুন: মিতালি রাজের ২২ বছরের পুরনো রেকর্ড ভেঙে দিলেন আয়ারল্যান্ডের এই ১৬ বছরের ক্রিকেটার

আইপিএলে ৪০টিরও বেশি ম্যাচে অধিনায়ক হওয়া সত্ত্বেও তাঁর দলকে চ্যাম্পিয়ন করাতে না পারার ক্ষেত্রে বীরেন্দ্র সেহওয়াগ দুই নম্বরে। ৫৩টি ম্যাচে আইপিএল দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন সেহওয়াগ। শচীন তেন্ডুলকর ৫১টি ম্যাচে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তিনিও মুম্বইকে চ্যাম্পিয়ন করাতে পারেননি। শচীনের পর আসে রাহুল দ্রাবিড়ের নাম। দ্রাবিড় ৪৮ ম্যাচে অধিনায়ক থাকা সত্ত্বেও তাঁর দলকে আইপিএল চ্যাম্পিয়ন করাতে পারেননি। শ্রীলঙ্কার কুমারা সাঙ্গাকারাও আইপিএলের অন্যতম ব্যর্থ অধিনায়ক। তিনি ৪৭টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *