ঐতিহ্যবাহী নন্দীগ্রামের আসন ফুরফুরা শরিফের নতুন দলকে ছেড়ে দিল বাম-কংগ্রেস জোট

Abbas Sidiki

Mysepik Webdesk: একসময় ঐতিহ্যবাহী নন্দীগ্রাম বিধানসভা আসন অধীনে ছিল বামেদের। তবে আসন্ন বিধানসভা ভোটের চিত্রনাট্য কিঞ্চিৎ বদলে গেল। পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা ভোটে নন্দীগ্রাম আসনে এবার লড়াই করবে না বাম-কংগ্রেস জোট। উল্লেখ্য যে, জোটের নতুন শরিক ফুরফুরা শরিফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির গড়া নতুন দল ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট বা আইএসএফ-কে আসন বণ্টনের ইস্যুতে নন্দীগ্রাম আসনটি ছেড়ে দিচ্ছে বাম-কংগ্রেস জোট। মঙ্গলবার বিকেলে আইএসএফের নেতা পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি এক জনসভায় বলেন, “এই আসনে আমাদের রাজ্য সরকারের বঞ্চনা, নির্যাতন ও শোষণের বিরুদ্ধে লড়তে হবে।” কলকাতার ধর্মতলার ওয়াই চ্যানেলে হয়েছিল এই জনসভা।

আরও পড়ুন: এবারের ভোট বিজেপির থিম সং গরু ও কয়লা: ফিরহাদ হাকিম

২০১১ সালে তৃণমূল সরকার বঙ্গের মসনদে বসার পিছনে অন্যতম ভূমিকা নিয়েছিল নন্দীগ্রাম। ১৯৫২ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ছিল সিপিআইয়ের দখলে। এরপর মোড় ঘোরে। নন্দীগ্রাম এবং সিঙ্গুরে জমিবিরোধী আন্দোলনের জেরে ক্ষমতায় আসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল সরকার। সর্বশেষ বিধানসভা নির্বাচনে এখান থেকেই বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। যদিও শুভেন্দু এখন তৃণমূল কংগ্রেস ত্যাগ করে বিজেপিতে যুক্ত হয়েছেন। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রাম থেকে দাঁড়ালে একদা ‘তৃণমূলি’ শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে লড়াই সেয়ানে সেয়ানে হবে, একথা মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *